তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলির বাড়িতে হামলা

এনএফবি,মুর্শিদাবাদঃ

শাসকদলের নেতাদের উপর জনতার রোষের ছবি বেশ কয়েকদিন ধরেই দেখছে জনতা। সদ্য মন্ত্রীত খোয়ানো পার্থ চ্যাটার্জীকে লক্ষ্য করে জুতো ছুড়ে সংবাদ শিরোনামে উঠে আসে শুভ্রা ঘড়ুই। যদিও তা প্রাক্তন মন্ত্রীর গায়ে না লাগায় আক্ষেপ করে বলেন, “জুতোটা ওর টাকে লাগলে শান্তি পেতাম।” তবে সোমবার রাতে আর প্রাক্তন নয় বর্তমান। মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলার বিধায়কের বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার রাতে ভগবানগোলা থানার সুবর্ণমৃগি এলাকায় বিধায়ক ইদ্রিস আলির বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠলো। অভিযোগ, বাড়ির সামনে রাখা বেশ কয়েকটি চেয়ার ভাঙচুর করা হয়। তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এমন ঘটনা বলে স্থানীয় সূত্রের খবর। যদিও খবর পেয়ে ভগবানগোলা থানার পুলিশ ঘটিনাস্থলে এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

এদিন রাত প্রায় ন’টা নাগাদ বেশ কয়েকজন বিধায়কের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বিধায়ক ইদ্রিস আলি তখন বাড়ির মধ্যে ছিলেন। তখন অভিযুক্তরা বাড়ির সামনে থাকা বেশ কয়েকটি চেয়ার ছুঁড়ে ফেলে এবং ভাঙচুর চালায়। তারা জানায়, দলের ব্লক সভাপতি, অঞ্চল সভাপতির পদ দেওয়ায় প্রতিশ্রুতি দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়েছেন ইদ্রিশ। এমনকি,বিধায়কের ছেলে এলাকার কয়েকজনের থেকে আশা কর্মী নিয়োগের জন্যও টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ। বিধায়ক স্থানীয় এক নেতাকে দিয়ে পঞ্চায়েতের টিকিট পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা নিয়েছেন বলেও তাদের অভিযোগ। বিধানসভার যেকোন কাজের টেন্ডার নিজের ছেলেকে পাইয়ে দিচ্ছেন বিধায়ক। যদিও এই অভিযোগের বিষয়ে বিধায়ককে ফোন করলে তিনি ফোন তোলেন নি। রানিতলার পুলিশ আধিকারিক বলেন, এখনও অভিযোগ হয়নি। তবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে রাজ্যের শাসকদলের কাছে ভগবানগোলার ঘটনা অস্বস্তি বাড়িয়ে তুললো বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.