বিসিসিআই সভাপতি সৌরভের তিন বড় সিদ্ধান্ত

অঞ্জন চ্যাটার্জী, এনএফবিঃ

বিসিসিআই সভাপতি হিসাবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জমানা শেষ। কোনো অঘটন না হলে নতুন বোর্ড সভাপতি হবে ১৯৮৩ সালে বিশ্বকাপজয়ী অল রাউন্ডার রজার বিনি। এখন দেখে নেওয়া যাক সৌরভের নেওয়া তিনটি বড় সিদ্ধান্ত যা ভারতীয় ক্রিকেটে আমূল পরিবর্তন এনেছে।

দিন-রাতের টেস্ট-

সৌরভের প্রতিনিধিত্বেই প্রথম পিঙ্ক বল টেস্ট খেলেছিল ভারতীয় দল। কলকাতায় ইডেন গার্ডেন্সে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে জাঁকজমক করে ভারতে প্ৰথম পিঙ্ক বল টেস্টের উদ্বোধন হয় সৌরভের হাত ধরে। ২০১৯ সালের শেষের দিকে এই টেস্ট স্মরণীয় হয়ে থাকবে সমর্থকদের কাছেও। এই ম্যাচেই আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের ৭০তম শতরান করেছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

আইপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বাতিল-

পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড হল বিসিসিআই। কিন্তু তা সত্ত্বেও নাচ-গানের মাধ্যমে হওয়া আইপিএল-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বন্ধ করার মতো মানবিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সৌরভ। অতিমারির সময় প্রয়োজনীয় আর্থিক সহায়তা না পাওয়ার কারণে প্রাণ হারিয়েছেন অসংখ্য দেশবাসী। তাই দেশবাসীর এই বিপদের দিনে আইপিএল-এর মতো বড় টুর্নামেন্টেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বন্ধ রেখেছিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ।

ঘরোয়া ক্রিকেটারদের বেতনবৃদ্ধি-

বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলির কাছে নজর কাড়ে ভারতের রিজার্ভ বেঞ্চ। বিগত কয়েক বছরে বেশ কিছু তরুণ খেলোয়াড় উঠে এসেছেন ভারতীয় দলে। যার পিছনে বিরাট অবদান রয়েছে সৌরভের। ঘরোয়া স্তরের ক্রিকেটারদের বেতন বাড়িয়ে তাদের পরিশ্রম করার জন্য রসদ জুগিয়েছেন মহারাজ। ফলস্বরূপ, ভারতীয় দল শহবাজ আহমেদ, রবি বিশ্নোই, আবেশ খান’দের মতো তরুণ তুর্কিদের উপহার হিসেবে পেয়েছে।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।