ঝুলনের শেষ ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতে অভিনব উদ্যোগ সিএবি’র

স্পোর্টস ডেস্ক, এনএফবিঃ

শনিবার লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবেন বাংলার ঝুলন গোস্বামী। আর ঝুলনের শেষ ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতে অভিনব উদ্যোগ নিচ্ছে ক্রিকেট এসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল( সিএবি)। শহরের নামী মাল্টিপ্লেক্সে শনিবার ঝুলনের কেরিয়ারের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ সরাসরি দেখানোর ব্যবস্থা করেছে সিএবি। সিএবি-র তরফে জানানো হয়েছে, এলগিন রোডের আইনক্স ফোরামে শনিবার দুপুর আড়াইটে থেকে ভারত বনাম ইংল্যান্ড ম্যাচ সরাসরি বড় পর্দায় দেখানো হবে। সিএবি কর্তারা সেখানে বসে ম্যাচ দেখবেন। এরপর ঝুলন ফিরলে তাকে সংবর্ধনা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। মহিলা ক্রিকেটে সর্বাধিক উইকেট শিকারি চাকদহ এক্সপ্রেস নিয়েছেন ৩৫২টি উইকেট ৷ মহিলা ক্রিকেটে বিশ্বের এক নম্বর ক্রিকেটারও হয়েছেন তিনি ৷ ডায়না এডুলজির পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে পদ্ম সম্মানে ভূষিত হয়েছেন ৷ ২০৩টি একদিনের ম্যাচে ২৫৩টি উইকেট নিয়েছেন। সেটাও তো বিশ্ব রেকর্ড। শেষটাও ভালো হয়েছে তার। নিজের শেষ সিরিজে তিনি যেমন ভালো পারফরমেন্স করেছেন একদিনের সিরিজও ভারত পকেটে পুরেছে।

গত বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে ঝুলনকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়ে সৌরভ জানান, ঝুলন প্রকৃত অর্থেই কিংবদন্তি। মহিলাদের ক্রিকেটে ও সর্বকালের সর্বাধিক উইকেট শিকারি। বাংলার মেয়ে, চাকদহের মেয়ে। আমার সঙ্গে ওর খুবই ভাল সম্পর্ক। তিন বছর আমি বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হিসাবে কাজ করছি। এই সময়ে মধ্যে ঝুলন, স্মৃতি মন্ধনা ও হরমনপ্রীত কউরের সঙ্গে মহিলা ক্রিকেট নিয়ে আমার প্রচুর বৈঠক হয়েছে। সত্যি বলতে ঝুলনের জন্য আমি অত্যন্ত খুশি। ওর বয়স প্রায় ৪০। কী অসাধারণ সাফল্য আমিও চাইতাম আমার মেয়ে ক্রিকেট খেলুক। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেটা হয়নি। ও যদি খেলে ঝুলনের মতো কেরিয়ার করতে পারত, তাহলে ব্যাপারটা অবিশ্বাস্য হত।’

ঝুলনের ভবিষ্যতের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়ে সৌরভ আরও বলেন, ‘দেখুন খেলা একটা সময় শেষ হয়। সব খেলোয়াড়দেরই থামতে হয়। আগামী রবিবার গ্রেটেস্ট এভার রজার ফেডেরারও কেরিয়ারে ইতি টানবেন। এটাই স্পোর্টস। তবে মহিলা ক্রিকেটে ঝুলন যে, ছাপ রেখেছে বিশেষত মহিলা সিম বোলার হিসাবে, তা অসাধারণ। ঝুলন একজন রোল মডেল। ওকে সকলে অনুকরণ করবে। ঝুলন লর্ডসে শেষ ম্যাচ খেলবে। আমি চাই সর্বোচ্চ সম্মানের সঙ্গেই ও কেরিয়ার শেষ করুক। ঝুলন লর্ডসেই খেলা শেষ করার স্বপ্ন দেখেছিল। সেটাই হচ্ছে। ভারতের জন্য ঝুলন দীর্ঘদিন খেলেছে। অ্যাবসোলিউট চ্যাম্পিয়ন বলতে যা বোঝায়। আমাদের কাছে এটা দারুণ ব্যাপার।’ ঝুলনকে সংবর্ধনা দেওয়ার পরিকল্পনাও আছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড কর্তাদের। এছাড়া ভারতীয় মহিলা দলের অধিনায়ক হরমনপ্রীত কউরও জানান, ওকে গোটা দল মিস করবে। পুরো কেরিয়ারে অসাধারণ পারফর্ম করেছে ও। দলের অনেকেই ওর থেকে অনেক কিছু শিখেছে। ওর সঙ্গে খেলার সুযোগ পেয়েছি, এটাই আমাদের জন্য দারুন একটা ব্যাপার। ঝুলনদির ক্রিকেটের প্রতি প্যাশন সবার থেকে আলাদা। দুর্দান্ত উদাহরণ। ওঁর থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে ক্রিকেট খেলা শুরু করেছে অনেকে। দলে উনি যে শক্তির সঞ্চার করেন, তা সত্যিই অনবদ্য। ওঁনার মত সিনিয়রকে দলে পাওয়া ভাগ্য়ের ব্যাপার।”

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.