বর্ধিত পুর কর বৃদ্ধির প্রতিবাদে নাগরিক কনভেনশন

এনএফবি, বালুরঘাটঃ

এক ধাক্কায় লাফিয়ে বেড়েছে সম্পত্তিকর। তা জেনে চড়তে শুরু করেছে ক্ষোভের পারদ। কর কমানোর জন্য এরমধ্যেই প্রতিবাদে সরব হয়েছে বালুরঘাট শহরের সাধারণ মানুষ।

বালুরঘাট পুরবাসী সম্মিলিত নাগরিক মঞ্চের তরফ থেকে নাগরিক কনভেনশনের ডাক দেওয়া হয়৷ সেই নাগরিক কনভেনশন অনুষ্ঠিত হয় রবিবার বিকেলে বালুরঘাট নাট্যতীর্থ মন্মথ মঞ্চে। যেই কনভেনশনে উপস্থিত ছিলেন বালুরঘাট শহরের বিভিন্ন স্তরের মানুষ। এমনকী উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মী সমর্থকরা।

অভিযোগ, এই পুরকর সকলের জন্য এক করা হয়নি। ব্যক্তি বিশেষে এই পুর কর বাড়ান হয়েছে৷ অদ্ভুত ভাবে বিভিন্ন মার্কেট হাউসে পুরকর নাম মাত্র রয়েছে ৷ আবার কারও ক্ষেত্রে কয়েক হাজারগুন বেড়েছে। যা নিয়ে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে৷

পাশাপাশি সভার পক্ষ থেকে আহ্বায়ক বাবলু কুন্ডুর দাবি পুরসভা সার্ভে সব ওয়ার্ডে করে নি। যে সব ওয়ার্ডে সার্ভে করা হয়নি সেই সব ওয়ার্ডে কোন কর বৃদ্ধি করেনি পুরসভার সার্ভে টিম।তার আরও অভিযোগ যার ছিল ৫০০ টাকা পুরকর। তাঁর করা হয়েছে ২ লক্ষ ২০ হাজার। যার ছিল ৮৭৫ টাকা তাঁর করা হয়েছে ১ লক্ষ ৪৪ হাজার টাকা। আবার মাসে যাঁরা ৪-৬ লক্ষ টাকা ভাড়া পান তাঁদের ক্ষেত্রে দেড় হাজার বা সর্বোচ্চ ৬ হাজার টাকা করা হয়েছে।

অযৌক্তিক ভাবে বালুরঘাট পুরসভা কর্তৃপক্ষ পুর ট্যাক্স বা পুর কর বাড়িয়েছে৷ এমনকি পক্ষপাতিত্ব করা হয়েছে এই ট্যাক্স বৃদ্ধির ক্ষেত্রে- এমনই অভিযোগ।

তবে কেন এমন বিভাজন? যদিও, পুরসভার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে প্রত্যেক ওয়ার্ডে অ্যাসেসমেন্ট করেই পুর কর বৃদ্ধি করা হয়েছে ৷ এমনকি এই পুর কর আগের বোর্ডের সিদ্ধান্ত বলেও জানানো হয়েছে৷ যদিও কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এই কর বৃদ্ধি করা হয়েছিল ২০ বছর আগে, তখন কংগ্রেসের ৬ জন কাউন্সিলররের প্রতিবাদে তৎকালীন বাম পরিচালিত পুর বোর্ড সেই সুপারিশ স্থগিত রাখতে বাধ্য হয় বলে জানান আজকের সভায় উপস্থিত থাকা কংগ্রেসের প্রতিনিধি স্বপন বিশ্বাস।

এ দিকে নাগরিক কনভেনশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এই পুর কর নিয়ে পুরসভাকে বিবেচনা করতে হবে। তা না হলে আগামী দিনে তারা আরও বড় আন্দোলনে নামবেন।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *