কলেজে বিল্ডিং দুর্নীতির মামলায় অধ্যক্ষকে জিজ্ঞাসাবাদ

এনএফবি, পূর্ব মেদিনীপুরঃ

কাঁথি প্রভাত কুমার কলেজে বিল্ডিং দুর্নীতি মামলায় আদালতের নির্দেশে তদন্তে এলেন পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলে ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক শ্বেতা আগারওয়াল। কাঁথি মহকুমা শাসক রেনু সোগান, তমলুকের ইঞ্জিনিয়ার-সহ প্রতিনিধি দল।

শুক্রবার কাঁথি কলেজে হাজির হন তারা। এইদিন সরাসরি কলেজের অধ্যক্ষ অমিত কুমার দের ঘরে চলে যান। দরজা বন্ধ করে কলেজের অধ্যক্ষকে জিজ্ঞাসাবাদ চালান তদন্তকারীরা। এ দিন সকাল ৯টা নাগাদ আগে থেকে কলেজে হাজির হয়ে ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ অমিত কুমার দে।

প্রসঙ্গত, গত ২০১৭ সালের কাঁথি প্রভাত কুমার কলেজে বিল্ডিং নির্মাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠে ছিল। কোন টেণ্ডার ছাড়াই বিল্ডিং নির্মাণ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ। বিল্ডিং নির্মাণের অনৈতিক অভিযোগ তুলে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন আইনজীবী আবু সোহেল। কলেজের বিল্ডিং নির্মাণের ক্ষেত্রে কোটি কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন।

মামলা অনুযায়ী তদন্ত শুরু করে কাঁথি থানার তদন্তকারীরা। তদন্তের কারণে কাঁথি থানা তদন্তকারীরা কলেজের অধ্যক্ষ অমিত কুমার দে’কে একাধিক বার জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। সেই রিপোর্ট জমা দেন৷ এরপর হাইকোর্ট নির্দেশ দেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলাশাসকের তদন্ত করে আগামী ১৮ অক্টোবরের মধ্যে রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য। এরপর পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক পূর্ণেন্দু মাজি ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল তৈরি করে তদন্ত শুরু করে। বিল্ডিং নির্মাণে তদন্তের জন্য কলেজের অধ্যক্ষকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে এলেন অতিরিক্ত জেলা শাসক শ্বেতা আগারওয়াল-সহ প্রতিনিধি দল।

প্রসঙ্গত, কাঁথি প্রভাত কুমার কলেজের বিল্ডিং নির্মাণে তৎকালীন কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ছিলেন বর্তমান রাজ্যের বিরোধী দলনেতা ও প্রাক্তন দু’বারের পুরপ্রধান সৌমেন্দু অধিকারী।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *