ধোঁয়ায় ওষ্ঠাগত প্রাণ, দূষিত জলপান- ভোটের মুখে ক্ষুব্ধ সেন্ট্রাল ডুয়ার্স

এনএফবি, আলিপুরদুয়ারঃ

বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত কালচিনি ব্লকের সেণ্ট্রাল ডুয়ার্স চা বাগান এলাকার বাসিন্দারা। এই সেণ্ট্রাল ডুয়ার্সে প্রায় ৩৫ হাজার জনগণের বসবাস। আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের পূর্বে এই এলাকার বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিল এলাকার বাসিন্দারা। প্রতিবেশী দেশ ভুটান লাগোয়া সেণ্ট্রাল ডুয়ার্সের বাসিন্দাদের সব থেকে বড় সমস্যা পানীয় জল ও পরিবেশ দূষণ। পরিবেশ দূষণে অতিষ্ট এই এলাকার বাসিন্দারা। সেণ্ট্রাল চা বাগান সীমান্ত লাগোয়া প্রতিবেশী দেশ ভুটানে সব থেকে বড় শিল্পাঞ্চল পাশাখা শিল্পাঞ্চল। এই শিল্পাঞ্চলের বিভিন্ন কারখানার ধোঁয়ায় ওষ্ঠাগত প্রাণ বলে দাবি স্থানীয়দের।

চর্মরোগ। নিজস্ব চিত্র

বাসিন্দারা জানান, আজ থেকে প্রায় ২৫ বছর পূর্বে প্রতিবেশী দেশ ভুটানে একদম সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় গড়ে ওঠে পাশাখা শিল্পাঞ্চল। এই শিল্পাঞ্চল বর্তমানে সেণ্ট্রাল ডুয়ার্সের বাসিন্দাদের বড় সমস্যা। এখানকার কারখানার চিমনি একদম ছোটো আর এই শিল্পাঞ্চলের দূষণে বেজায় সমস্যায় সেণ্ট্রাল ডুয়ার্সবাসীর। এলাকার প্রায় সমস্ত জনগণ চর্মরোগে আক্রান্ত, এছাড়া অনেকে শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত ।

কারখানার দূষিত জল মিশছে। নিজস্ব চিত্র

তাদের আরও বলেন, প্রত‍্যেকের ঘরের টিনে সাদা আস্তরণ পড়ে গিয়েছে এক বছরের টিন টিকছে না। এলাকায় পূর্বে অল্প চাষবাস হত সেটাও হয় না এখন।

এলাকার মানুষের অন‍্যতম পেশা সুপারি চাষ কিন্ত দূষণের জেরে সুপারি ফলনও হচ্ছেনা।

শীলা দাস সরকার, সভাধিপতি

দূষণ ছাড়াও এই এলাকার অন‍্যতম বড় সমস্যা পানীয় জলের সঙ্কট। এখন অবধি এই এলাকায় সরকারের পক্ষ থেকে কোনো পানীয় জলের প্রকল্প হয়নি। বাসিন্দাদের একমাত্র পানীয় জলের উৎস হচ্ছে সিঙ্গিঝোরা নদী। সেণ্ট্রাল ডুয়ার্স চা বাগান থেকে সিঙ্গিঝোরা নদী থেকে জল মেশিনের মাধ‍্যমে ঘরে ঘরে বিভিন্ন শ্রমিক মহল্লায় সরবরাহ করা হয় কিন্তু বর্তমানে সেই পানীয় জলে সমস্যা হচ্ছে কেননা প্রতিবেশী দেশ ভুটানের পাশাখা শিল্পাঞ্চলের দূষিত জল ফেলা হচ্ছে সিঙ্গিঝোরা নদীতে। বর্তমানে সেই জল বাধ‍্য হয়ে ব‍্যবহার করতে হচ্ছে।

সরস্বতী কামি, স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য

স্থানীয়রা জানান, ভোট আসে ভোট যায় প্রতিবছর ভোটের সময় গ্ৰামে নেতা মন্ত্রীরা আসে আশ্বাস দেয় এবার সমস্যা সমাধান হবে কিন্তু সমস্যার সমাধান হয়না।

স্থানীয় বিজেপি পঞ্চায়েত সদস্য সরস্বতী কামি জানান, এই এলাকার বাসিন্দারা খুবই নোংরা জল পান করছে এছাড়া দূষণে এলাকার বাসিন্দারা খুবই সমস্যায় আছে সরকারের পক্ষ থেকে এই এলাকার বাসিন্দাদের কোনোও কিছু চিন্তা ভাবনা করা হচ্ছেনা বঞ্চিত এই এলাকার বাসিন্দারা।

নিকিতা ওঁরাও, স্থানীয় বাসিন্দা। নিজস্ব চিত্র

এই বিষয়ে তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অরুণা পরিয়ার জানান, খুব শীঘ্র সেণ্ট্রাল ডুয়ার্সে পানীয় জলের প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।