ছয় বছর ধরে প্রাথমিক স্কুলে পানীয়জলের সমস্যা, ফান্ড নেই জানালেন বিডিও

এনএফবি, মুর্শিদাবাদঃ

দীর্ঘ ৬ বছর ধরে প্রাথমিক স্কুলে পানীয় জলের সমস্যা, দায় এড়ালেন বিডিও। বহরমপুর থানার সদর পশ্চিম চক্রের অন্তর্ভুক্ত ভাকুড়ি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে পাকুরিয়া আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পানীয় জলের সমস্যা দীর্ঘদিনের। স্কুলের ছোট ছোট বাচ্চারা বাড়ি থেকে পানীয় জল নিয়ে আসে। কোন কারণে সেই জল খেয়ে শেষ করে ফেললে বা পড়ে গেলে তারা আর পানীয় জল খেতে পায় না। বাধ্য হয়ে তাদের পান করতে হয় স্কুলের আর্সেনিক ও আয়রন যুক্ত জল।

লাল হয়ে যাওয়া কলতলা। নিজস্ব চিত্র

স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা শংকরী সাহা জানিয়েছেন, “২০১৭ সাল থেকে আমরা বহরমপুর ব্লক উন্নয়ন আধিকারিককে বছরে পর বছর শুধু চিঠির পরে চিঠি করেছি কিন্তু দীর্ঘ ৬ বছর হয়ে গেলেও পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হয়নি। পানীয় জলের অযোগ্য আয়রন যুক্ত জলে রান্না করতে হয় মিড ডে মিলের। সেই মিড ডে মিলের খাবার বাচ্চারা খেতেও চায় না। ডেঙ্গু পরিস্থিতিতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধানকে জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি।

মধুমিতা হালদার, পঞ্চম শ্রেণির পড়ুয়া

স্কুলে পানীয় জলের অসুবিধা প্রসঙ্গে বহরমপুর ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক অভিনন্দন ঘোষের কাছে জানতে চাইলে তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, এই অর্থবর্ষে তাদের কাছে আর কোন ফান্ড নেই। আগামী ২০২৩-২৪ সালে নতুন ফান্ড তৈরি হলে এখান থেকে পানীয় জলের সমস্যার সমাধান করা হবে।

পানীয় জলের সমস্যা সমাধানের জন্য ছোট ছোট বাচ্চাদের আর কতদিন অপেক্ষা করতে হবে?

মৌসুমী ঘোষ, অভিভাবিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *