খিদিরপুরকেও হারাতে ব্যর্থ, ড্র দিয়ে কলকাতা লিগ শুরু লাল হলুদ ব্রিগেডের

স্পোর্টস ডেস্ক, এনএফবিঃ

কলকাতা লিগের সুপার সিক্স অভিযান ড্র দিয়ে শুরু করলো ইমামি ইস্টবেঙ্গল। ম্যাচের ফলাফল গোলশূন্য। রবিবার মহালয়ার দিনে খিদিরপুরে বিরুদ্ধে বেশ ছন্নছাড়া ফুটবল খেলে লাল হলুদ ব্রিগেড। একদিকে যেমন গোল করায় দলের ফুটবলারদের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাব। ঠিক তেমনই ডিফেন্স গলদ। সব মিলিয়ে এলো না জয়।

এদিন কথা মতো জুনিয়র দল নামায় লাল হলুদ ব্রিগেড। কোচিং করেন স্টিফেন কনস্টানটাইনের সহকারী বিনো জর্জ। ম্যাচের শুরুতেই ৪ মিনিটে জেসিন টিকে গোলের সুযোগ পায় লাল হলুদ। কিন্তু বক্সে গিয়েও জেসিন টিকে গোল করতে পারেননি। এরপর ১০ মিনিটের মাথায় বাংলার সন্তোষ ট্রফি দলের মনিতোষ রায় খিদিরপুর বক্সে জোড়ালো শট মারলে সেটা দারুন সেভ করেন বাংলার সন্তোষ ট্রফি দলের খিদিরপুর গোলরক্ষক প্রিয়ন্ত সিং। শুধু এই সেভই নয় রবিবার নৈহাটীতে বেশ কিছু সুন্দর সেভ করেন কামারহাটির প্রিয়ন্ত। তবে লাল হলুদ বেশ পাসিং ফুটবল খেলে। প্রথমার্ধ শেষ সময়ের কিছুক্ষণ আগে এদিন লাল হলুদের অধিনায়ক দীপ সাহা নিশ্চিত গোলের সুযোগ পেলে সেটা মিস করেন। প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকে।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ইমামি ইস্টবেঙ্গলকে বেশ নড়বড়ে মনে হয়। তুলনায় খিদিরপুর আক্রমণ নির্ভর ফুটবল খেলে। আর ৫৮ মিনিটে গোল খেয়েও যেতে পারতো ইস্টবেঙ্গল। দীপেন্দু দুয়ারি লাল হলুদ বক্সে গিয়ে সুন্দর পাস দেন করি বাউলিকে কিন্তু গোল হয়নি।
৬৪ মিনিটে ইস্টবেঙ্গল বিষ্ণু টিএমকে নামান শুভম ভৌমিকের জায়গায়।
৬৬ মিনিটে ফের গোল খেতে পারতো ইমামি ইস্টবেঙ্গল। কিন্তু সূর্য জয়সওয়াল সুন্দর সেভ করেন
এরপর মূলত খিদিরপুরকেই গোলের জন্য মরিয়া লাগে। তবে তারা মূলত অভিজ্ঞতার অভাবেই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। ম্যাচ শেষ হয় গোলশূন্য ব্যবধানে।
রবিবার মহালয়ার দিন মাঠ ভরান লাল হলুদ সমর্থকেরা। কিন্তু তাঁদের হতাশ হয়েই মাঠ ছাড়তে হলো।

আগামী বুধবার এরিয়ানের বিরুদ্ধে ফের নৈহাটিতে নামবে ইমামি ইস্টবেঙ্গল
রবিবার কলকাতা লিগের সুপার সিক্সের অন্য ম্যাচে কিন্তু হতাশ করল না বাংলার আর এক প্রধান মহামেডান স্পোর্টিং। কল্যাণীতে এরিয়ানকে ৩-০ গোলে হারালো সাদা কালো ব্রিগেড। গোলগুলি করেন মার্কোস জোসেফ,ওসামানে আর ফজলু।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।