মন্ত্রী থাকি বা না থাকি দিনহাটায় জমির দালালি করতে দেব নাঃ উদয়ন গুহ

এনএফবি,কোচবিহারঃ

উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের দায়িত্ব নিয়ে কোচবিহারে ফিরেই ফের কড়া ভাষায় হুশিয়ারী মন্ত্রীর। “দিনহাটায় জমির দালালির ঘুঘুরবাসা ভেঙে দেবো। দিনহাটায় কোন জমির দালালি করা যাবে না।” তিনি আরও বলেন, “দিনহাটা এমন কিছু মানুষ আছেন যাদের কোন রোজগার নেই অথচ দিনের পর দিন তারা নতুন বাড়ি বানাচ্ছেন বউদের জন্য গয়না কিনছেন, কিভাবে করছেন তার তদন্ত করুক ইডি, দিনহাটা পুলিশ।”
একই সাথে সুর ছড়িয়ে জেলার তৃণমূল সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক বলেন, কোচবিহারের সমস্ত নেতৃত্ব থেকে শুরু করে সকল তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা ১ থেকে দেড় বছরের জেল খাটার জন্য প্রস্তুত হয়ে আছে মিথ্যে মামলায়। ২০২২, ২০২৩-এ কেন্দ্রীয় সরকার ইচ্ছাকৃতভাবেই এই কাজ গুলো করবে। সুতরাং প্রস্তুত হয়ে যান।
উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের পুরনো মন্ত্রী হয়ে মঙ্গলবার কোচবিহারে পা রাখলেন দিনহাটার বিধায়ক উদায়ন গুহ। নিউ কোচবিহার স্টেশনে তাকে সংবর্ধনা জানাতে উপস্থিত ছিলেন হাজার হাজার কর্মী সমর্থক। সেখানে অস্থায়ী মঞ্চে তাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক। জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যান গিরীন্দ্রনাথ বর্মন সহ আরও অনেকে। সেখান থেকে তিনি পৌঁছে যান তার নিজের দুর্গ দিনহাটায়। কমল গুহর পরে ২০২২ সালে কোন পুরনো মন্ত্রী পেল দিনহাটা। তাই তাকে শুভেচ্ছা জানাতে লক্ষাধিক মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যায় দিনহাটা জুড়ে। সেখান থেকেই তিনি বার্তা দেন কোন দুর্নীতি সহ্য হবে না তৃণমূল কংগ্রেসে। একইসঙ্গে আগামী সাত থেকে দশ দিনের মধ্যে কোচবিহার জেলা তৃণমূল কার্যালয় তৈরি করার কথা ঘোষণা করেন অভিজিৎ দে ভৌমিক। ৫০ হাজার লাড্ডু দিয়ে কর্মী সমর্থকদের পাল্টা শুভেচ্ছা প্রদান করে দিনহাটা পুরসভার পুরপ্রধান গৌরী শংকর মহেশ্বরী।

নিজস্ব চিত্র

এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন,উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের বেশ কিছু কাজ করোনা কালে আটকে আছে, সেগুলিকে চালু করার বিষয়ে তৎপর হতে হবে। একইসঙ্গে প্রাক্তন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ এবং গৌতম দেবের সাথে তিনি আলোচনা করবেন আরও কিভাবে উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন করা সম্ভব হয়। বুধবার তিনি শিলিগুড়িতে পৌঁছবেন এবং সেখানেই বিগত দিনে কাজের খতিয়ান খতিয়ে দেখবেন। যদিও বা নিন্দুকের দাবি উত্তরবঙ্গ বঞ্চিত শব্দটিকে উড়িয়ে দিয়ে তিনি বলেন, যারা নিন্দা করছেন তারা নিজেদের বাড়িতে গিয়ে ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের সাথে স্লেট নিয়ে বসুন, তারাই বলে দেবে ২০১১ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের কি কি উন্নতি হয়েছে। সেই সঙ্গে উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের খতিয়ান এবং কোচবিহারের বিগত দিনে শিক্ষা স্বাস্থ্য এবং পরিবহণের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরেন তিনি।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.