কিউইদের উড়িয়ে সিরিজ ভারতের

এনএফবি, স্পোর্টস ডেস্কঃ

এক ম্যাচ বাকি থাকতেই নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজে জয় পেলো ভারত। ১৭৯ বল বাকি থাকতে মাত্র ২০.১ ওভারে ৮ উইকেটে জয় টিম ইন্ডিয়ার। শনিবার দুপুরে রায়পুরে মহম্মদ শামির বল হাতে জ্বলে ওঠেন। ৬ ওভার বল করে ১৮ রান দিয়ে তিন উইকেট তুলে নেন। ভারতীয় পেসারদের দাপটে ৩৪.৩ ওভারে মাত্র ১০৮ রানে অলআউট হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। ভারতের বিরুদ্ধে কিউয়িদের তৃতীয় সর্বনিম্ন স্কোর। রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২০.১ ওভারে ২ উইকেটের বিনিময়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় টিম ইন্ডিয়া।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৪০০তম উইকেট নিতে শামির প্রয়োজন ছিল ৪ উইকেট। দ্বিতীয় ম্যাচেই সেই মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলতে পারতেন বাংলার পেসার। কিন্তু ৩৯৯ এ থেমে যান। আরও একটি ম্যাচ অপেক্ষা করতে হবে। ব্যাট হাতে আবার রানে ফিরলেন রোহিত শর্মা। ৪৭ বলে অর্ধশতরান সম্পূর্ণ করেন হিটম্যান।

টসে জিতে ফিল্ডিং নেন রোহিত। ১৫ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারায় টম লাথামরা। প্রথম পাঁচ ব্যাটারের কেউ ১০ রানের গণ্ডি পার করতে পারেননি। পাঁচজন মিলে করে ১১ রান। শুরুতেই জোড়া উইকেট তুলে নেন শামি।ফিরিয়ে দেন ফিন অ্যালেন (০) এবং ড্যারেল মিচেলকে (১)। দুর্ধর্ষ ক্যাচ নিয়ে নিজের প্রথম ওভারেই ডেভন কনওয়েকে (৭) ফিরিয়ে দেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। রান পাননি টম লাথামও। শার্দূলের বলে মাত্র ১ রানে স্লিপে ধরা পড়েন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক।

দশ ওভারে ১৫ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর আর ম্যাচে ফেরা সম্ভব ছিল না। কিন্তু কিছুটা ধরে খেলার চেষ্টা করেন গ্লেন ফিলিপস এবং মাইকেল ব্রেসওয়েল। ষষ্ঠ উইকেটে ৪১ রান যোগ করে এই জুটি। ২২ রানে আউট হন প্রথম একদিনের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান। জুটি ভাঙেন শামি। সর্বোচ্চ রান ফিলিপসের। ৩৬ করেন তিনি। স্যান্টনারের সঙ্গে সপ্তম উইকেটে ৪৭ রান যোগ করেন। দলের ১০৩, ব্যক্তিগত ২৭ রানের মাথায় স্যান্টনার আউট হওয়ার পর বাকি পাঁচ রানের মধ্যে শেষ হয়ে যায় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস। ৩৪.৩ ওভারে অলআউট হয়ে যায় কিউয়িরা। তিন উইকেট নেন মহম্মদ শামি। জোড়া উইকেট হার্দিক পাণ্ডিয়া এবং ওয়াশিংটন সুন্দরের। একটি করে উইকেট নেন মহম্মদ সিরাজ, শার্দূল ঠাকুর এবং কুলদীপ যাদব।

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা দারুণ করে ভারত। ওপেনিংয়ে আরও একটি অর্ধশতরান যোগ করে রোহিত-শুভমন জুটি। নিজের মেজাজেই ব্যাট করেন ভারতের নেতা। অন্যান্য ম্যাচে শুরুটা ভাল করলেও বড় রান পাচ্ছিলেন না। এদিন সেই খরা কাটল। ৭টি চার এবং ২টি ছয়ের সাহায্যে ৫০ বলে ৫১ রান করে আউট হন। এদিন পুরোনো রোহিতের একঝলক মিলল। তবে সবাইকে অবাক করে সুইপ এবং রিভার্স সুইপ খেলতেও দেখা যায় ভারত অধিনায়ককে। রোহিত আউট হওয়ায় পর খোলস ছেড়ে বেরোন শুভমন গিল। ৫৩ বলে ৪০ রান করে অপরাজিত থাকেন। এদিনও রান পাননি বিরাট কোহলি। মাত্র ১১ রানে স্যান্টনারের বলে স্ট্যাম্প আউট হন। তবে ২০.১ ওভারে জয় পেয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *