পাকিস্তানে এশিয়া কাপ খেলতে যাবে না ভারত

অঞ্জন চ্যাটার্জী, এনএফবিঃ

ইন্ডিয়া ২০২৩ সালে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত হতে চলা এশিয়া কাপে যাবে না। বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ নিশ্চিত করেছেন। বিসিসিআইয়ের উচ্চপদস্থ কর্তার থেকে এমন মন্তব্য আসার পরে পাকিস্তানের কী প্রতিক্রিয়া হতে পারে সেই দিকেই নজর ক্রিকেট দুনিয়ার।

এর আগে জানা গিয়েছিল যে বোর্ড প্রতিবেশী দেশে এশিয়ান টুর্নামেন্টের জন্য জাতীয় দল পাঠানোর বিষয়ে চিন্তাভাবনা করেছে। তবে শাহ নিশ্চিত করেছেন যে, ভারত পাকিস্তানে যাবে না। উল্লেখ্য, ভারত শেষবার ২০০৮ সালে এশিয়া কাপের জন্য পাকিস্তান সফর করেছিল এবং এখন একটি ‘নিরপেক্ষ কেন্দ্র’ নিয়ে আহ্বান ওঠায় আলোচনা এবং অপেক্ষা অব্যাহত থাকবে পাকিস্তানকে দুটি বড় টুর্নামেন্ট-২০২৩ এশিয়া কাপ এবং ২০২৫ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি – আয়োজন করার অধিকার দেওয়া হয়েছে এবং আশা করা হয়েছিল ভারত তাদের প্রতিবেশী দেশে খেলতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকবে। এটি লক্ষণীয় যে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক ম্যাচ প্রায় এক দশক ধরে হয়নি এবং তারা শুধুমাত্র আইসিসি বা এসিসি বহু-দলীয় ইভেন্টে একে অপরের বিরুদ্ধে খেলে।

উঠে আসা তথ্য অনুসারে, বিসিসিআই শর্তাবলীতে সম্মত হয়নি।

জয় শাহ এশিয়া কাপের আয়োজক সংস্থা এসিসির সভাপতি হওয়ায়, মহাদেশীয় টুর্নামেন্টের আয়োজক কেন্দ্র পাকিস্তানের বাইরে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান রামিজ রাজা গত বছর বলেছিলেন যে বিসিসিআই পুরো আইসিসি এবং পরোক্ষভাবে পিসিবিকেও চালায়। পিসিবির আয়ের ৫০ শতাংশ আসে শীর্ষ বোর্ড আইসিসির থেকে এবং আইসিসির প্রায় ৯০ শতাংশ আয় হয় ভারতীয় বাজার ও বিসিসিআইয়ের থেকে।

“আইসিসি তহবিলের ৯০ শতাংশ ভারতীয় বাজার থেকে উৎপন্ন হয়। অন্য কথায়, ভারতীয় ব্যবসায়িক সংস্থাগুলি পাকিস্তান ক্রিকেট পরিচালনা করছে। আগামীকাল, “যদি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নেন যে তারা পাকিস্তান ক্রিকেটকে অর্থ ব্যয় করবেন না, তা হলে একটি সম্ভাবনা রয়েছে যে পিসিবি ধ্বসে যেতে পারে।” রাজা বলেছিলেন।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *