দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ঠেকানোই এখন চ্যালেঞ্জ মৃনালের কাছে

এনএফবি,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ

আমরা ছোটরা মাথা নিচু করে চললেই বড়রা আমাদের মাথায় হাত রাখবেন। তাই আমরা মাথা নিচু করেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় সবাইকে নিয়ে তৃণমূলকে শক্তিশালী হিসেবে গড়ে তুলতে পারব। – বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মিনিউসিপ্যালিটির সূবর্নতট সভাগৃহে এক সাংবাদিক বৈঠকে দলের গোষ্টীদ্বন্দ ও দলের অগ্রজ ও অনুজদের মধ্যে সমন্বয় নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে এই কথা বলেন দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা তৃণমূলের নবনিযুক্ত জেলা সভাপতি মৃনাল সরকার।

রাজ্য তৃণমূল কমিটির দ্বারা জেলা তৃণমূলের নবনিযুক্ত সভাপতি হয়ে কলকাতায় দলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের সাথে এক বৈঠক সেরে জেলায় ফিরেছেন আজই। এরপর তিনি গঙ্গারামপুর থেকে জেলা সদর বালুরঘাটের সূবর্নতটে এসে দলের কর্মকর্তাদের সাথে এক বৈঠক করেন। কিন্তু নতুন জেলা সভাপতি মৃনাল বাবু দলের গোষ্টীদ্বন্দ সমাধান নিয়ে যতই দাবি করবেন বলে জানান না কেন, আজকের এই বৈঠকে জেলার মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র ও তার ভাই গঙ্গারামপুর পুরসভার চেয়ারম্যান প্রশান্ত মিত্রের অনুপস্থিতি সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল বলেই মনে করছে জেলার রাজনৈতিক মহলের একাংশ। যদিও জেলা সভাপতি মৃনাল বাবু সেই ব্যাপারে জবাব দিতে গিয়ে বিপ্লব মিত্রের সাথে তার ফোনে কথা হয়েছে এবং তিনি কলকাতায় রয়েছেন বলে জানালেও পুরসভার চেয়ারম্যান মন্ত্রীর ভাই কেন অনুপস্থিত সে ব্যাপারে একটি শব্দ খরচ না করে বলেন, “আজকের এই মিটিং ছিল টাউন তৃণমূলের। তাই তার আসার প্রশ্নই নেই।”

অপরদিকে তার বিরুদ্ধে বিজেপির তরফে তোলা খুনের অভিযোগ নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে জেলা সভাপতি মৃনাল সরকার সব অভিযোগ অস্বীকার করে পালটা রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের নামেই থানায় অভিযোগ রয়েছে বলে কামান দাগেন।

এরপাশাপাশি নবনিযুক্ত জেলা সভাপতি বলেন তিনি গঙ্গারামপুর ব্লক সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর যেভাবে তৃণমূলের গোষ্টীদ্বন্দ সামাল দেওয়ার ব্যাপারে গঙ্গারামপুর মডেল হিসেবে আখ্যা পেয়েছেন। ঠিক সেভাবেই জেলায় দলের গোষ্টীদ্বন্দ সামাল দিতে গঙ্গারামপুর মডেল চালু করতে চান বলে জানান। যদিও পরে অবশ্য নিজেই নিজের গঙ্গারামপুর মডেলের কথা ঢোক গিলতে বাধ্য হন।

এখন দেখার, এত সব দাবি করার পর তিনি তার দলের সব গোষ্টীদ্বন্দ সামাল দিয়ে কি ভাবে দলকে আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটের আগে পরিচালনা করে গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলাপরিষদ দখলে রাখতে পারেন।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.