ক্ষতিগ্রস্ত যুবকের তৎপরতায় বহরমপুরে ধৃত কেপমার

এনএফবি, মুর্শিদাবাদঃ

কেপমারের দৌরাত্ম বেড়েছে বহরমপুরে। নকল সোনার বিস্কুট ও নকল সোনার ঘড়ি দেখিয়ে মোটা টাকা, সোনার গহনা ও মোবাইল ফোন হাতানোর চেষ্টা। বৃহস্পতিবার দুপুরে বহরমপুর থানার চুঁয়াপুর কদমতলা সংলগ্ন এলাকায় দুই কেপমার নকল সোনার ঘড়ির লোভ দেখিয়ে মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত বেলডাঙ্গার যুবক ইরফান শেখ জানিয়েছেন, তারা দুই বন্ধু মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এসেছে ডাক্তার দেখাতে। সেই সময় চুয়াপুর কদমতলা এলাকায় দুই কেপমার তাদেরকে বলে তাঁদের কাছে একটি সোনার ঘড়ি আছে। সেটা তারা বিক্রি করবে। ইরফান লোভের বশবর্তী হয়ে তাদেরকে মোবাইল ফোন দিয়ে ঘড়িটা নিয়ে নেয়। কেপমারের টিমে থাকা অন্য আরও দুই কেপমার মোবাইল নিয়ে চম্পট দেয়। কেপমারের শিকার যুবকের ডাকাডাকিতে স্থানীয়রা ছুটে এসে দুই জনকে আটকে রেখে মারধোর করে। বহরমপুর থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে দুই কেপমারকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন আগে এক মহিলাকে সোনার বিস্কুটের লোভ দেখিয়ে সোনার কানের ও টাকা নিয়ে চম্পট দেয় কেপমারেরা। যদিও পরে বহরমপুর থানার পুলিশ সেগুলিকে উদ্ধার করে।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।