বাবুঘাটে হলে মমতা ব্যানার্জী কার্নিভাল করত না- শুভেন্দু

এনএফবি, পূর্ব মেদিনীপুরঃ

রেড রোডের কার্নিভাল প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বিস্ফোরক বিজেপি নেতা তথা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এ দিন নন্দীগ্রামে এক কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে শুভেন্দু জানান, এটা বাবুঘাটে হলে বা কলকাতার কোনও ঘাটে হলে মমতা ব্যানার্জী কার্নিভাল করতো না। উত্তরবঙ্গে হয়েছে বলেই নাচন কাঁদন করবেন। সরকারি টাকায় মোচ্ছব। তাতে দুর্গা ঠাকুরের কোনও ছবি নেই, উনার দাঁত ক্যালানো ছবি প্রচুর থাকবে।

একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, এইজন্যই উত্তরবঙ্গ আলাদা রাজ্য চায়, আলাদা থাকতে চায়, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল চায়। কলকাতায় থাকা এই সমস্ত নেতারা কর্তারা উত্তরবঙ্গকে বিভিন্ন সময় অবহেলা বঞ্চনা করেছেন।

পাশাপাশি এ দিন শুভেন্দু তার ভাই সৌমেন্দুকে দুর্নীতির অভিযোগে কাঁথি থানায় ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ নিয়েও সরব হয়েছেন। তিনি বলেন, কোর্টে এজি দাড়িয়ে বলেছে এক সঙ্গে দু’ঘণ্টার বেশি জিজ্ঞাসাবাদ করা যাবে না। দশঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। শুভেন্দু বলেন, ‘দু’শো ঘণ্টা করতে পারে। বেআইনি কাজ করছে, কোর্টে কেমন কানমলা খায় দেখবেন। আমি বহুত শক্ত জিনিস আছি। ব্রিটিশের পুলিশকে ভয় করিনি, এলি তেলিকে-কে ভয় করে! মমতা ব্যানার্জিকে সুদে আসলে উইথ ইন্টারেস্ট শুভেন্দু অধিকারী ফেরত দেবে।’

শ্যামল আদক সম্পর্কে বলেন, ওখানে একজন টাকলা এসডিপিও আছে রাহুল পান্ডে, ভাইপোর কথা শুনে নাচছে। এদেরকেই এজেন্সি ডাকবে। কোর্ট খুললে মুখে আলকাতরা মাখাবো। রায়গঞ্জের কার্নিভাল সম্পর্ক বলেন পুলিশ তার কাজ করছেনা। পুলিশের কাজ তোলা তুলে ভাইপোকে পাঠানো।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।