জীবন যে কোনো খাতে বইতে পারে বলে মোদীর নাম সৌরভের মুখে

স্পোর্টস ডেস্ক, এনএফবিঃ

চোখে মুখে চাপের পাহাড়। বোর্ড সভাপতি তিনি থাকছেন না, সেটা একপ্রকার স্পষ্ট। বৃহস্পতিবার বন্ধন ব্যাংকের ব্র্যান্ড আম্বাসেডর হলেন মহারাজ। আর ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাম মুখে আনলেন সৌরভ। তার কথায়, ‘মোদী, সচিন, আম্বানি একদিনে হয় না। আমি এতদিন ক্রিকেট খেলেছি, প্রশাসক ছিলাম অনেক বছর। দেখা যাক কী হয় ভবিষ্যতে। ভারতীয় দল কয়েক বছরে ভালো পারফরমেন্স করেছে বিদেশে গিয়ে জিতেছে। আইপিএল করোনার সময় আয়োজিত করেছে।’ মোদীর কথা সৌরভের মুখে শুনে অনেকেই অন্য রকম গন্ধ পাচ্ছেন।

কারণ সৌরভের রাজনীতিতে আসা নিয়ে অনেক জল্পনা কল্পনা হচ্ছে। এরপরই সৌরভ যোগ করেন, ‘ক্রিকেটে একটা শতরান নিজেকে বিশ্বাস করায় যে পরের দিন খেলতে নেমে ভালো খেলব। কিন্তু শুরুটা কিন্তু আপনাকে শূন্য থেকেই করতে হয়। তবে সেই শতরান আত্মবিশ্বাস দেয় যে আমি ভালো খেলবো। জীবনে আত্মবিশ্বাসই সবকিছু। রিজেক্ট হতে হয় আবার, পুরস্কৃতও হতে হয়। এটাই জীবন। এবার অন্য কিছুতে মন দেব।”

এদিন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের কোনোও প্রশ্নের মুখোমুখি হন নি সৌরভ। বন্ধন ব্যাংকের অধিকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা প্রশ্নোত্তর পর্বে এই সব কথা উল্লেখ করেন।

২০১৯ সালে ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনে পালাবদল হয়েছিল। লোধা কমিশনের সুপারিশে ২০১৯ সালে নতুন বোর্ড গঠন হয়। সেই সময় ব্রিজেশ প্যাটেলের নাম উঠে আসে সভাপতি হিসেবে। পরবর্তী বোর্ড সভাপতি ভাবা হচ্ছিল তাঁকে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সব হিসেব পাল্টে বোর্ড সভাপতি হওয়ার জন্য মনোনয়ন জমা দেন সৌরভ। এরপর ব্রিজেশকে হারিয়ে কিস্তিমাত করেন সৌরভ। যদিও এবার আর সৌরভকে সভাপতি করা হয়নি। তা নিয়ে রাজনৈতিক চাপানুতোর শুরু হয়েছে।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *