মোহনবাগানের দলের বাজেট বেশি- হেরে সাফাই স্টিফেনের

স্পোর্টস ডেস্ক, এনএফবিঃ

মোহনবাগান না এটিকে এই নিয়ে বিরোধ আছে। অনেক ইস্টবেঙ্গল সমর্থক বিগত ডার্বি গুলোতে হারের পরে বলেছেন তারা মোহনবাগান না এটিকের কাছে হেরেছেন। যদিও সেই মন্তব্যর সঙ্গে যে একমত নন সেটা স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন ইস্টবেঙ্গল হেড কোচ স্টিফেন কনস্টানটাইন। ম্যাচ হারার পরে এদিন তাকে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন এটিকের কাছে হেরেছেন না মোহনবাগানের কাছে! স্টিফেন সেই সাংবাদিকের উদ্দেশ্য জানালেন, “আলাদা করার চেষ্টা করছেন! আমি বলছি মোহনবাগান। এটিকে নয়।” এছাড়া এদিন দলের হার নিয়ে টিমের ইনভেস্টরদের নাম না করে ঠুকলেন। ডার্বি হারের জন্য কম বাজেটের দলের সাফাই দিলেন সাহেব কোচ। তার কথায়, “আমরা জানি মোহনবাগানের টিম বাজেট। আমরা জানি আমাদের টিম বাজেট। হুগো, কাউকো, দিমিত্রিদের মতো তারকারা আছে ওদের দলে।বওরা সাফল্য পাবেই।”

এছাড়া দলের গোলরক্ষক কমলজিৎ সিংকে হারের ভিলেন বানানো হচ্ছে। স্টিফেন জানালেন, “ফুটবলে অনেক ভুল হয়। আজ আমাদের গোলকিপারের ভুলে ম্যাচ হারলাম। প্রত্যেক ম্যাচ থেকেই আমি শিখি। এই হার থেকেও শিক্ষা নেব।”

লাল হলুদের হেডস্যার বলছেন কাজ কঠিন তবে এখনও প্রথম ৬ তে আইএসএলে শেষ করা সম্ভব। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে আই লিগের ডার্বিতে যে বিজয়রথ শুরু হয়েছিল, তা অব্যবহত। টানা সাত ডার্বি জয়। আইএসএলে টানা ৫ ডার্বি জয়। এদিন যুবভারতীতে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে সপ্তম আইএসএল ডার্বি জিতল সবুজ মেরুন ব্রিগেড । শনিবার রাতে হাউসফুল যুবভারতীতে ২-০ গোলে ইস্টবেঙ্গলকে হারাল এটিকে মোহনবাগান। দুই গোলদাতা হুগো বুমোস এবং মনবীর সিং। একেবারে পোয়েটিক জাস্টিস। ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে ৫৬ মিনিটে সবুজ মেরুনকে এগিয়ে দেন হুগো বুমোস। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে নেওয়া দূরপাল্লার শটে গোল। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে ব্যবধান বাড়ান মনবীর সিং। দশ মিনিটের মধ্যে বদলে গেল ম্যাচের রং। ট্রেন্ড ধরে রাখল এটিকে মোহনবাগান।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।