ব্যক্তিগত জিনিসের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায়! কোহলির কাছে ক্ষমা চেয়ে নিল হোটেল কর্তৃপক্ষ

অঞ্জন চ্যাটার্জী, এনএফবিঃ

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসেছে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে। সেখানে ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে কোনওনা কোনও ঘটনা ঘটেই চলেছে। কখনোও ক্রিকেটারদের সঙ্গে অভব্য আচরণ তো কখনও খারাপ খাওয়ার। নানান সময় বিভিন্ন ঘটনাই উঠে এসেছে ভররের শিরোনামে। সোমবার তো ঘটনার কেন্দ্রে একেবারে বিরাট কোহলি। পার্থে নিরাপত্তা ভঙ্গের অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি।

টিম হোটেলে তাঁর ঘরের ভিডিও তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে ছেড়ে দিয়েছিলেন সেই হোটেলেরই কয়েকজন কর্মী। এরপরই সমালোচনার ঝড় শুরু হয়েছিল।

সোশ্যাল মিডিয়াতেই সেই ভিডিও ছবি পোস্ট করে নিন্দা করেছিলেন বিরাট কোহলি। সেইসঙ্গে কারোর ব্যক্তিগত জিনিসের ছবি এভাবে সবার সামনে নিয়ে আসার জন্যও ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। আর তাতেই শুরু হয়েছিল হৈচৈ। অবশেষে বিরাট কোহলির কাছে ক্ষমা চাইল পার্থের ক্রাউন রিসর্টসের কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে যারা এই কাজ করেছিলেন তাদেরকেও হোটেলের তরফে নির্বাসিত করার শাস্তি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে এখান থেকেই।

বিরাট কোহলির হোটেলের রুমের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছিল। ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত জিনিসের ছবি সামনে নিয়ে আসাতেই নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলতে পিছপা হননি বিরাট কোহলি। এরপরই এই গোটা ঘটনা আইসিসির সামনে তুলে ধরা হয় ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের তরফে। আর তাতেই বেশ নড়েচড়ে বসেন তারা। এমন ঘটনা জানার পরই শুরু হয়েছে সমালোচনা। সবশেষে বিরাট কোহলির কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন সেই হোটেল কর্তৃপক্ষের তরফে। সেইসঙ্গে বিরাট কোহলির সঙ্গে যে কর্মীরা এমনটা করেছেন তাদেরকে নির্বাসিতও করা হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে সেই হোটেলের তরফে জানানো হয়েছে, “এই ঘটনার জন্য ক্রাউন তাদের যথা সম্ভব পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। যে ব্যক্তিরা এই কাজ করেছেন তাদেরকে ইতিমধ্যেই হোটেল থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সেই ছবিও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। কেন এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে এবং এর পিছনে কী মনোভাব ছিল সেটাই জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

পার্থে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে নেমেছিল ভারতীয় দল। যদিও সেখানে ম্যাচের ফলাফল একেবারেই ভারতীয় দলের পক্ষে আসেনি। যদিও সেমিফাইনালে পৌঁছনোর পথে এগিয়েই রয়েছে টিম ইন্ডিয়া। পরপর দুই ম্যাচ জিতে ভারতীয় দলের পয়েন্ট এখন ৪। সামনে এখনও দুটো ম্যাচ রয়েছে টিম ইন্ডিয়ার। সেখানেই বাংলাদেশ এবং জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে নামবে ভারতীয় দল। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে জিততে পারলেই সেমিফাইন কার্যত পাকা হয়ে যাবে ভারতীয় দলের।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।