পাইলট প্রোজেক্ট উদ্বোধন গড়িয়াহাটে, দেওয়া হবে হকার পরিচয়পত্র

এনএফবি, কলকাতাঃ

কলকাতায় মডেল হকার তৈরি করতে উদ্যোগ নিল কলকাতা পুর সংস্থা। ২০১৫ সালে যে হকাররা পরিচয় পত্রের জন্য আবেদন করেছিলেন, তাঁদের পরিচয়পত্র দেবে পুরসভা। ইতিমধ্যে তাদের পরিচয়পত্র দেওয়ার জন্য সমীক্ষা করছে ‘টাউন ভেন্ডিং কমিটি’।

সোমবার গড়িয়াহাট মার্কেট চত্বরে পাইলট প্রজেক্ট হিসাবে হকারদের টিনের দেওয়া শেড দেওয়া দোকান উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসে একথা জানালেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম এবং কমিটির চেয়ারম্যান তথা হকার পূর্নবাসন দফতরের মেয়র পরিষদ দেবাশীষ কুমার। এছাড়াও এ দিনের অনুষ্ঠানে ছিলেন হকার সংগ্রাম কমিটির সাধারণ সম্পাদক শক্তিমান ঘোষ, স্থানীয় কাউন্সিলর সৌরভ বসু এবং কাউন্সিলর সুদর্শনা মুখোপাধ্যায়-সহ পুর আধিকারিকরা।

টিনের শেড দেওয়া এই দোকান প্রসঙ্গে মেয়র জানান, পাইলট প্রজেক্ট হিসাবে গড়িয়াহাট মার্কেটে এইধরনের টিনের শেড দিতে সমস্ত হকারদের বলা হচ্ছে। যাতে কোনো রকম অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত না তৈরি হয়। তিনি জানান যে প্লাস্টিকের ফলে এই গড়িয়াহাট মার্কেটে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। তাই নিজের নিরাপত্তার স্বার্থে হকারদের আহ্বান করা হচ্ছে যে সবাই যাতে টিনের শেড লাগিয়ে দেন।

একইসঙ্গে তিনি জানান, আমি এই প্রথম গড়িয়াহাট মার্কেটে খোলা আকাশ দেখতে পাচ্ছি।অন্যদিকে টাউন ভেন্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান তথা হকার পূর্নবাসন বিভাগের মেয়র পরিষদ দেবাশীষ কুমার জানান, যে একমাসের মধ্যে আর প্লাস্টিক শেডের হকার থাকবে না। সমস্ত দোকান টিন দিয়ে এইভাবে তৈরি করা হবে।

এ দিন হকারদের প্রতিনিধি হিসাবে উপস্তিত ছিলেন শকাতিমান ঘোষ। তিনি জানান, সমস্ত নিয়ম মেনেই হকাররা বসবে। আর গড়িয়াহাট মার্কেটকে মডেল হকার জোন করা হবে বলে।এদিন তিনি বিদেশের আদলে সমস্ত দোকান তৈরি করা হবে বলে জানান টাউন ভেন্ডিং কমিটির সদস্য ও হকার সংগ্রাম কমিটির সাধারণ সম্পাদক শক্তিমান ঘোষ।

উল্লেখ্য টাউন ভেন্ডিং কমিটির সদস্যরা। হকারদের বিশদ তথ্য জমা জমা করেছে কলকাতা পুর সংস্থায়। তার ভিত্তিতে হকারদের শংসাপত্র এবং পরিচয়পত্র দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে হকারদের লাইসেন্স দেওয়ার বিষয়ে মেয়র পরিষদ বৈঠকে হকার পূর্নবাসন বিভাগের মেয়র পরিষদ দেবাশীষ কুমার জানিয়েছেন যে, যারা ইতিমধ্যে টিন লাগিয়ে নিলে তাদেরকে লাইসেন্স দিয়ে দেওয়া হবে। আজকে গড়িয়াহাট মার্কেট মেয়র ফিরহাদ হাকিম এবং দেবাশীষ কুমারের পরিদর্শনের পর মাথায় টিন দিয়ে হকারি করা শুরু করে দিলেন গড়িয়াহাট মার্কেটের এক অংশের হকাররা।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।