আন্দোলনকারীদের হাতেই প্লাস্টিকব্যাগ, তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিজেপির

এনএফবি,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ

ওইসব নায়ক টায়ক ছাড়। বাজারে বেশিরভাগ ব্যবসায়ী গ্রামের লোকজন, আর সামনে পঞ্চায়েত ইলেকশন। এখন যদি আমরা ক্যারিব্যাগ বন্ধ করে দিই তাহলে জনগণ আমাদের ক্যারিব্যাগের মধ্যে বন্ধ করে দেবে। – কথাগুলি যিনি বলছিলেন তিনি তৃণমূল দলের এক নেতা। শাসক দলের নেতার মুখে এমন কথায় কিছুটা ভিমড়ি খাওয়ার অবস্থা বিজেপি নেতা কর্মীদের।

একদিকে যখন তৃণমূল পরিচালিত বালুরঘাট পুরসভা জনগণের মধ্যে প্লাস্টিক বন্ধ করা নিয়ে প্রচার চালাচ্ছে। ঠিক তখনই অন্যদিকে খোদ তৃণমূলের নেতাদের প্লাস্টিক হাতে বাজার করে বাড়ি ফিরতে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। তৃণমূল পরিচালিত বালুরঘাট পুরসভার বিরুদ্ধে ক্যারিব্যাগ বন্ধ করার নামে যে প্রচারের খরচ করা হচ্ছে তা জনগণের প্রদেয় করের টাকায় অপচয় ছাড়া আর কিছু নয় বলে অভিযোগ জানিয়ে বালুরঘাট মহকুমা শাসকের নিকট অভিযোগ জানাল বিজেপি।

অভিযোগ পত্র

বিজেপির অভিযোগ, বিগত তৃণমূলের বোর্ড এবং বর্তমান তৃণমূলের বোর্ড প্লাস্টিক বন্ধ করার জন্য একাধিক কর্মসূচি নিয়েছিল বড়বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায়।
প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে জোড়কদমে প্রচার চালিয়েছিল। কিন্তু বাস্তবে তা বাস্তবায়িত হয়নি এমনই লিখিত অভিযোগ মহকুমা শাসকের কাছে জানিয়েছে বিজেপি।
এ বিষয়ে বিজেপি জেলা কমিটির সদস্য সুমন বর্মন বালুরঘাট পুরসভার তৃণমূলের কাউন্সিলর সহ একাধিক তৃণমূলের নেতা নেত্রীর দিকে আঙ্গুল তুলে বলেন, “বালুরঘাট পুরসভার তৃণমূলের কাউন্সিলর তৎসহ নেতা-নেত্রীরা জনগণের ট্যাক্সের লক্ষ লক্ষ টাকা খরচা করে বারবার ঢাকঢোল পিটিয়ে ক্যারিব্যাগ বন্ধ করার এই যে বার্তা দিচ্ছেন, আদৌও কি ক্যারিব্যাগ বন্ধ হয়েছে বাজারে! খোঁজ খবরটা নিয়ে দেখুন।” বিজেপি নেতা সুমন বর্মন বলেন, ” ক্যারিব্যাগ বন্ধ হবে কি করে? যে সমস্ত তৃণমূলের নেতা-নেত্রীরা ক্যারিব্যাগ নিয়ে আন্দোলন করছে তারাই তো দেখি ক্যারিব্যাগ করে বাজার থেকে মাছ বাড়ি নিয়ে যাচ্ছে।”

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.