বিস্ফোরণ কাণ্ডের পর জেলা জুড়ে পুলিশি অভিযান, ধৃত ১

এনএফবি,পূর্ব মেদিনীপুরঃ

গতকাল পাঁশকুড়ার সাধুয়াপোতা গ্রামে বাজী বিস্ফোরণের পরেই নড়েচড়ে বসলো জেলা পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত কোলাঘাট থানার পয়াগ গ্রামে বাজী কারখানায় হানা দেয়। এদিন পয়াগ গ্রামের একাধিক বাড়িতে তল্লাশি চালায়। তবে কাউকে ধরতে না পারলেও প্রায় লক্ষাধিক টাকার বেআইনি বাজী ও বারুদ উদ্ধার করেছে।

অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে পূর্ব মেদিনীপুরের একাধিক জায়গায় বেআইনি বাজী তৈরি করা হয়। তার মধ্যে অন্যতম কোলাঘাটের পয়াগ গ্রাম। এখানে বেশ কিছু পরিবার এই কাজের সাথে দীর্ঘবছর ধরে জড়িত।

পাঁশকুড়ার সাধুয়াপোতার মতো একাধিক বার এই গ্রামে বাজী বিস্ফোরণের ঘটনা পূর্বে ঘটেছে। গত বছরও এই গ্রামে মাঠের মাঝে একটি বাজী কারখানায় বিস্ফোরণে এক ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়েছিল।

বেআইনি বাজি বাজেয়াপ্ত। নিজস্ব চিত্র

তবে মঙ্গলবারের বিস্ফোরনের পরেই জেলা পুলিশ নড়েচড়ে বসে এবং পয়াগ গ্রামের বাজী কারখানায় হানা দেয়।

পাশাপাশি পূর্ব মেদিনীপুরের সবচেয়ে বড় বাজি মার্কেট মহিষাদলের চিঙ্গুরমারী। প্রতিবছর সেখানে বেআইনি ভাবে লক্ষ টাকার বাজি বিক্রি হয় বলে অভিযোগ। এখানেও অভিযান চালায় পুলিশ। বাজি বিক্রির অপরাধে মহিষাদল থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে একজনকে। ধৃতের নাম দোলন ঘড়াই।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।