জেলা জুড়ে ‘কোচবিহারের লজ্জা’ স্লোগানে পোস্টার

এনএফবি, কোচবিহারঃ

কোচবিহার জেলা জুড়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের চোর পোস্টারকে ঘিরে রাজনৈতিক তরজা যেন তুঙ্গে উঠেছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই কোচবিহার শহরের বিভিন্ন জায়গায় এই পোস্টার চোখে পড়ে। পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সামনে রেখে তৃণমূল বিজেপি তরজা যেন এক নতুন মাত্রা যোগ করেছে এই পোস্টার বিতর্ককে ঘিরে।

চোর ধরো, জেল ভরো সোনার দোকানে চুরির সঙ্গে যুক্ত স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কোচবিহারের লজ্জা বলেই ওই পোস্টারে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিন এবিষয়ে কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক জানান, “সাংসদ নিশীথ প্রামাণিক আমাদের লজ্জা। সোনার দোকানে চুরির মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে আদালত পরোয়ানা জারি করেছে। সেই পরোয়ানার পরোয়া না করে, আদালতে হাজির না হয়ে মন্ত্রী দিল্লি, দেশবিদেশ ঘুরে বেড়াচ্ছেন। উনি সাংসদ হওয়ার পর কোচবিহারের মানুষ ওঁর দেখাও পান না। তাই কোচবিহার জেলা জুড়ে তাঁর ছবি লাগিয়েছি যাতে সাধারণ মানুষ দেখতে পান আমাদের সাংসদকে।”

যদিও এবিষয়ে গুরুত্ব দিতে নারাজ বিজেপি। এদিন এবিষয়ে কোচবিহার জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদিকা মিনতি দাস ঈশোর জানান, “বিজেপির স্লোগানকে অনুসরণ করে করছে তৃণমূল। তাই মাথায় কিছু নেই। নেতাদের কর্মীদের ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানোর চক্রান্ত করছে তৃণমূল। যতই তারা পোস্টার ব্যানার শহর জুড়ে লাগান না কেন, তাতে কোন লাভ হবে না। সাধারণ মানুষ জানে তৃণমূল কংগ্রেস দুর্নীতিগ্রস্ত দল। তাদের সরকার আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্ত। যতই তৃণমূল চক্রান্ত করুক না কেন তাতে কোন লাভ হবে না। পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলকে মানুষ যোগ্য জবাব দিয়ে দেবে।”