শরীরে ১৮ টি সেলাই নিয়ে মাধ্যমিকের অঙ্ক পরীক্ষা দিল শান্ত

এনএফবি,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ

শরীরে ১৮ টি সেলাই নিয়ে হাসপাতালের বেডে বসে আজ মাধ্যমিকের অঙ্ক পরীক্ষা দিল শান্ত দাস। শান্ত কুমারগঞ্জ থানার গোপালগঞ্জ আর এল স্কুলের ছাত্র ৷ মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষায় সে ৪০১ নম্বর পেয়েছিল ৷

শান্ত দাসের পিতা ফণি দাস জানান, তাঁর দুই ছেলে ৷ বড় ছেলে বর্তমানে ব্যাঙ্গালোরে নার্সিং ট্রেনিং ফার্স্ট ইয়ার পড়াশোনা করছে ৷ তিনি আর ও জানান,১৩ মার্চ রবিবার বিকেল বেলায় তিনি বাড়ির বাইরে ছিলেন এমন সময় পাশের বাড়িতে তাদের পোষ্য ছাগল বেঁধে রাখাকে কেন্দ্র করে শান্তর মায়ের সঙ্গে প্রতিবেশীদের মধ্যে বচসা শুরু হয় ৷ প্রতিবেশীরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে শান্তর মায়ের দিকে তেড়ে আসে এমন অবস্থা দেখে শান্ত মাকে বাঁচাতে যায় ৷ কিন্তু প্রতিবেশী মহিলা ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারি মারতে থাকে সেই আঘাতেই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী শান্ত গুরুতর জখম হয় ৷ খবর পেয়ে বাড়িতে ছুটে গিয়ে ফণি বাবু শান্ত কে বালুরঘাট সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যায় ৷ সেখানে শান্তর শরীরে ১৮ টি সেলাই পড়ে ৷ শান্ত মাথায় এবং ডান হাতের বুড়ো আঙ্গুলে গুরুতর আঘাত পায় । কলম ঠিকমতো ধরতে না পারলেও হাল ছাড়েনি শান্ত ৷ হাসপাতালের বেডে অনেক অসুবিধার মধ্যে দিয়ে সালাইন হাতে নিয়ে আজ মাধ্যমিকের অঙ্ক পরীক্ষা দিয়েছে বলে জানা গেছে ৷

খবরটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করুন

নিউজফ্রন্ট বাংলার এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 95936 66485