বিরাট ব্যাটিং দেখে মুগ্ধ সূর্যকুমার

স্পোর্টস ডেস্ক, এনএফবিঃ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এবার যেন স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন বিরাট কোহলি। প্রথম ম্যাচেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নিজের পারফরম্যান্সের ঝলক দেখিয়েছিলেন তিনি।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের জয়ের নায়ক তিনি। এরপর নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে নেমেছিল ভারতীয় দল। সেখানেও দুর্ধর্ষ ফর্মে বিরাট কোহলি। আর বিরাট কোহলির এই পারফরম্যান্স দেখেই আপ্লুত হয়েছেন তাঁরাই সতীর্থ সূর্যকুমার যাদব। বিরাটের সঙ্গে ব্যাট করতে পারার অনুভূতিটাই নাকি অন্যতম। বিরাট কোহলির সঙ্গে পিচে থাকা প্রতিটি মুহূর্তই উপভোগ করেন তিনি।

প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যাট হাতে অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। তাঁর ৫৩ বলে ৮২ রানের ইনিংসের সৌজন্যেই প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের মতো প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়েছিল ভারতীয় দল।

নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধেও ভারতীয় দলের বড় রান করার অন্যতম প্রধান কারিগর বিরাট কোহলি। প্রথমে রোহিত শর্মার সঙ্গে, তারপর সূর্যকুমার যাদবের সঙ্গে ৯৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে ভারতকে ১৭৯ রানে পৌঁছে দেন তিনি।

এই প্রসঙ্গে প্রথম পর্ব শেষে সূর্যকুমার যাদব জানিয়েছেন, “আমি এখানে সবসময়ই ব্যাটিং উপভোগ করি। সেইসঙ্গে এদিনের পার্টনারশিপটাও যথেষ্ট উপভোগ করেছি। মাঠে আসার পরই বিরাট ভাই আমাকে বলেন যে যেভাবে তুমি ব্যাটিং করো সেভাবেই ব্যাটিং করতে থাক। সেখানেই আমি নিজের পারফরম্যান্স দেখানো শুরু করি। দেখে এটাই সবথেকে ভাল লাগছে যে এখানে সবাই আমাদের সাপোর্ট করতে এগিয়ে এসেছে। আমার স্ত্রীও এখানে রয়েছেন আমাকে সাপোর্ট করার জন্য। এই উইকেট কিন্তু পেসের খানিকটা সহায়ক।”

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড কখনওই বিরাট কোহলিকে খালি হাতে ফেরায়নি। এবারও তার অন্যথা হয়নি। টি টোয়েন্টিতে মাত্র একটিই ম্যাচেই বিরাট কোহিলি এখানে অর্ধশতরান পাননি। বাকি প্রতিটি ম্যাচেই অর্ধশতরানে রয়েছে তাঁর। এদিনও তার অন্যথা হল না। নেদারল্যান্ডের বিরুদ্ধেও ৬২ রানের দুর্ধর্ষ ইনিংস খেললেন বিরাট কোহলি। সূর্যের সঙ্গে করলেন ৯৮ রানের পার্টনারশিপও।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।