গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী কিশোর , চাঞ্চল্য

এনএফবি, মুর্শিদাবাদঃ

কালীনগর এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক নাবালক। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার বিকেলে মুর্শিদাবাদের রানীনগর থানার কালীনগর এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জুনাইদ আলমকে, (৯) নিজের বাড়িতে গামছা দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলতে দেখে তার ছোট ভাই। এরপর ছোট ভাইই তাকে নিচে নামিয়ে মাথায় জল দেয় এবং হাওয়া করে। এরপর ছোট ভাই পাড়া পড়শিদের বিষয়টি জানায়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে পরিবারের সদস্যরা চিকিৎসার জন্য গোধানপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। তারপর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে। ঘটনার পর এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় জুনাইদ আলমের বাবা জিয়ারুল হক ঝালমুড়ির ব্যবসা করে। কোন মতে সংসার চলে । তার উপর জুনাইদ আলমের মা দেড় মাস আগে অন্য জনের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করে সংসার করছে। তারপর থেকে মায়ের অভাব বোধ করত জুনাইদ। মন খারাপ করে ঘুরে বেড়াতো। এসবের জন্যও গলায় ফাঁস দিতে পারে বলে অনুমান পরিবারের সদস্যদের। ছেলের মৃত্যুর খবর মায়ের কাছে জানানো হলেও দেখতে আসেনি মা। এমনকি জুনাইদের পরিবারের সদস্যরা তার মাকে হুরশি এলাকায় আনতে গেলেও সে ছেলের মরা মুখ দেখতে আসেনি বলে জানান পরিবারের সদস্যরা। ঘটনার পর মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বহরমপুরে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে রানিনগর থানার পুলিশ।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.