তমলুকে বিধি মেনে পুণ্যস্নান

এনএফবি,পূর্ব মেদিনীপুরঃ

বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ, আর এই বারো মাসে তেরো পার্বনের মধ্যে পৌষ সংক্রান্তি উৎসব একটি অন্যতম উৎসব ৷ আর এই পৌষ সংক্রান্তিতে পুণ্য স্নানের জন্য শুক্রবার সকাল থেকেই ভিড় লক্ষ্য করা গেল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন নদীর ঘাটে। শীত উপেক্ষা করেই এই দিন তমলুকে স্টিমারঘাটে ও কপালমোচন ঘাটে রূপনারায়ণে ডুব দিলেন কয়েক হাজার পুণ্যার্থী।

এই মকর সংক্রান্তি উপলক্ষ্যে তমলুকের কপালমোচন ঘাটের কাছে বসেছে বারুণী মেলার আসর। তবে মহামারি করোনা ভাইরাসের বাড়বাড়ন্তের জন্য সরকারি নির্দেশে মেলা না হলেও বিভিন্ন গ্রামীণ কুটির শিল্পীরা হরেক রকম মাটি, বাঁশ, বেত দিয়ে তৈরি ঘর সাজানোর সামগ্রী, খাবারের স্টল সাজিয়ে বসেছেন। তমলুক শহরের উত্তরচড়া শঙ্করআড়া এলাকার শান্তি সঙ্ঘের উদ্যোগে গঙ্গা পুজোর আয়োজন-সহ বারুণী মেলা এই বার ৫২ তম বছরে পা দিয়েছে। করোনা বিধি থাকার কারণে শুধুমাত্র পুজো হচ্ছে, বাকি সমস্ত সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। ঐতিহ্যবাহী কপালমোচন ঘাট ও রূপনারায়ণ নদীতে মকর স্নানের জন্য আসা পুণ্যার্থী-সহ প্রতি বছর মেলায় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটে।তবে এই বার কোভিড বিধি থাকার কারণে তুলনামূলক কিছুটা ভিড় কম দেখা যায় জেলার বিভিন্ন নদী ঘাটগুলোতে। পাশাপাশি একই চিত্র উঠে আসে কোলাঘাটের গৌরাঙ্গ ঘাট সহ বেশ কয়েকটি ঘাটে ৷ তবেই পুণ্যস্নান কে ঘিরে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে এবং সবাই যাতে সরকারি গাইডলাইন মেনে এই উৎসবে সামিল হয় তার নজরদারির জন্য মোতায়েন রয়েছে পুলিশ ৷

এদিন, পার্শ্ববর্তী জেলা থেকে আগত এক পুণ্যার্থী বলেন, গতবারের তুলনায় এই বছর কিছুটা সচল হলেও আমাদের সব সময় সরকারি গাইডলাইন মেনে চলা উচিত ৷ আমরা যেন মাস্ক পরে এই উৎসবে সামিল হতে পারি ৷


খবরটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করুন

নিউজফ্রন্ট বাংলার এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 95936 66485

Leave a Reply

Your email address will not be published.