চাকরির নামে টাকা দিয়ে আত্মঘাতী যুবক, তারাপীঠ থেকে গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত

এনএফবি, মুর্শিদাবাদঃ

প্রাথমিকে টাকা দিয়েও চাকরি না মেলায় যুবকের আত্মহত্যার ঘটনায় গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত। বীরভূমের তারাপীঠ থেকে মূল অভিযুক্ত দিবাকর কোনাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার তাকে লালবাগ আদালতে তোলা হলে বিচারক দশ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, তারাপীঠের একটি হোটেলে ছিল দিবাকর। গত ২৭ সেপ্টেম্বর লালগোলার পাইকপাড়ার বাসিন্দা আব্দুর রহমান আত্মহত্যা করেন। জানা যায়, প্রাথমিকে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে কান্দির বাসিন্দা দিবাকর কোনাই আব্দুর রহমানের কাছে থেকে সাড়ে সাত লক্ষ টাকা নিয়েছিল। কিন্তু চাকরি মেলেনি। এরপরেই অবসাদে আত্মঘাতী হয় চাকরিপ্রার্থী।আদালতের নির্দেশে ৩০ তারিখে কবর থেকে দেহ তুলে ফের ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় পুলিশ।

সেই ঘটনাতে ইতিমধ্যেই ২৯ সেপ্টেম্বর রেহেসান শেখ নামে এক অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেফতার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে গত ১৯ অক্টোবর প্রজানন সরকার নামে আরও এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এই দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে মূল অভিযুক্ত দিবাকর কোনাইকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। ধৃতের বিরুদ্ধে ৩০৬ ও ৩৪ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। ধৃতকে লালবাগ কোর্টে অ্যাডিশনাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া সরকারের এজলাসে ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজত চেয়ে তোলা হলে বিচারক ১০ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। তবে ঘটনা নিয়ে মুখ খুলতে চায় অভিযুক্ত দিবাকর কোনাই।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।