পিছিয়ে গেল পাঞ্জাবের বিধানসভা নির্বাচন

এনএফবি, নিউজ ডেস্কঃ

ধর্মীয় আবেগকে গুরুত্ব দিয়ে রাজনৈতিক দলগুলির আবেদনে সাড়া দিয়ে পাঞ্জাবে ভোট পিছিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। পূর্ব ঘোষিত ১৪ ফেব্রুয়ারির বদলে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি পাঞ্জাবে বিধানসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহন হবে বলে ঘোষণা করল কমিশন।

গত ৮ জানুয়ারি উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পাঞ্জাব, মণিপুর এবং গোয়ার নির্বাচন নির্ঘন্ট প্রকাশ করে ভারতের নির্বাচন কমিশন। সেই নির্ঘন্ট অনুযায়ী ১৪ ফেব্রুয়ারি এক দফায় পাঞ্জবের ১১৭টি বিধানসভা আসনে ভোট গ্রহনের কথা জানানো হয়। সেই সময় ঘোষিত নির্বাচন সময়সূচিকে স্বাগত জানালেও শনিবার হঠাৎ অবস্থান বদল করে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নি নির্বাচন কমিশনকে চিঠি লিখে ভোট গ্রহন পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন করেন। পরে একই দাবি জানায় বিজেপিও।

উল্লেখ্য, ১৬ ফেব্রুয়ারি পাঞ্জাবের দলিত শিখদের ধর্মগুরু রবিদাসের জন্মজয়ন্তী। সেই উপলক্ষে ১০ ফেব্রুয়ারি থেকেই বেনারসে তীর্থ করতে যাবেন প্রায় ২০ লক্ষ দলিত শিখ। ১৪ ফেব্রুয়ারি ভোট গ্রহন হলে এই বিপুল সংখ্যক ভোটার তাদের নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হবেন। নির্বাচন কমিশনের কাছে পাঞ্জাবের সব রাজনৈতিক দলগুলির আবেদন ছিল ভোটের দিন অন্তত ছয় দিন পিছিয়ে দেওয়া হোক। তারপরেই সোম্বার পাঞ্জাবের ভোটের নতুন নির্ঘন্ট পুনরায় ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন।
নয়া সময় সূচি অনুযায়ী আগামী ২৫ জানুয়ারি থেকে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মনোনয়ন জমা। স্ক্রুটনি হবে ২ ফেব্রুয়ারি। মনোনয়ন তুলে নেওয়ার দিন ৪ ফেব্রুয়ারি এবং ভোট গ্রহন হবে ২০ ফেব্রুয়ারি।


খবরটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করুন

নিউজফ্রন্ট বাংলার এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 95936 66485

Leave a Reply

Your email address will not be published.