অরণ্যশহরের ঘোড়াধরা সার্বজনীন দুর্গাপুজো কমিটির ৫৭ তম বর্ষে পুজোর থিম ‘কৃষ্টিরক্ষায় আদিম জনজাতি’

এনএফবি,ঝাড়গ্রামঃ

কেমন ছিল আদিম জনজাতিদের জীবন, শিল্প ও সংস্কৃতি। কিভাবেই বা তাঁরা জঙ্গলে দিন কাটাতো। কেমন করে পশুর সঙ্গে লড়াই করতো। কিভাবে টিকে ছিল সমাজে। সভ্যতার আদি পর্বে এই আধুনিক মানুষ পৃথিবীর সর্বত্রই পাথরকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতো। আদিম যুগের সেই সমস্ত চিত্র ফুটে উঠবে পুজোর মণ্ডপে। অরণ্যশহরের ঘোড়াধরা সার্বজনীন দুর্গাপুজো কমিটি এবার ৫৭ তম বর্ষ। পুজোর থিম ‘কৃষ্টিরক্ষায় আদিম জনজাতি’।

নিজস্ব চিত্র

আদিম জনজাতির জনজীবন ফুটে উঠেবে মন্ডপে। তরুণ মন্ডপ শিল্পী অভিজিৎ দত্তর ভাবনা ও কর্মে ফুটে উঠছে এই মন্ডপ। মন্ডপ তৈরিতে ব্যবহার হচ্ছে ফোম ও কাগজ ইলেকট্রিক পাইপ, বাঁশের লাঠি ছাড়াও বিভিন্ন জিনিসপত্র। মন্ডপের বাইরে একটি বিশালাকৃতির আদিম মানুষের মুখের অবয়ব ফুটে উঠবে। তার দু’পাশে আদিম মানুষজন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকবে। সেই সময় অস্ত্র বলতে যে বল্লম প্রচলন বেশি ছিল তা দেখা যাবে এখানে। এই জন্য বাঁশ দিয়ে কয়েকশো বল্লম তৈরি করা হচ্ছে। এছাড়াও আদিম যুগে মানুষ পশু শিকারের পর পশুর মুখ যেভাবে টাঙিয়ে রাখত ঠিক তেমনই মন্ডপের বাইরে পশুরাজ সিংহের মুখ। শালগাছে ঘেরা ঘোড়াধরা পার্কের আদিম জানজাতির এই মন্ডপ একেবারে অন্যমাত্রায় রূপ দেবে বলে পুজো উদ্যোক্তাদের দাবি।

নিজস্ব চিত্র

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।