নাম না করে রজার বিনিকে একপ্রকার খোঁচা সৌরভের

অঞ্জন চ্যাটার্জী, এনএফবিঃ

সৌরভের ছেড়ে যাওয়া আসনে ১৯৮৩ সালে বিশ্বকাপজয়ী পেসার দক্ষিনের রজার বিনিকে বিসিসিআই সভাপতি করা হচ্ছে। এনশ্রীনিবাসন ঘনিষ্ট বিনি। সৌরভ বিনিকে নিয়ে কিছু না বললেও একপ্রকার খোঁচা দিলেন বিনিকে। এদিন কলকাতার বিলাসবহুল হোটেলে বন্ধন ব্যাংক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সৌরভকে তাদের ব্র্যান্ড আম্বাসেডর হিসাবে ঘোষণা করা হয়।

ক্রিকেটার সৌরভ আর ধারাভাষ্যকার সৌরভের ক্রিকেট জীবনের নানা মুহূর্ত উঠে আসে অনুষ্ঠান মঞ্চের পিছনে থাকা পর্দায়। ২০১৪ সালে লর্ডসে সৌরভ আর রাহুল দ্রাবিড় কমেন্ট্রি করছিলেন। সেই ছবি ভেসে আসে স্ক্রিনে। সেখানে কাকতালীয় ভাবে স্টুয়াট বিনি অর্থাৎ রজার বিনির ছেলে সেই টেস্টে বল করেন সেই ছবিও ভেসে আসে। মজার ছলে সৌরভ বলেন,” এটা স্টুয়ার্ট বিনি রজার বিনি নয় কিন্তু। সবাই দেখে নিন।”
দাদার এই মন্তব্য উপস্থিত সাংবাদিকদের মধ্যে হাসির রোল ওঠে।

সৌরভের পর বোর্ড প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেখা যেতে পারে রজার বিনিকে। ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য বিনি। তিনি বর্তমানে কর্নাটক রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার সভাপতিও। সৌরভ প্রেসিডেন্ট পদে না থাকলেও জয় শাহ থাকছেন সেক্রেটারি পদেই। পাশাপাশি বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষও বদলে যাচ্ছে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, মহারাষ্ট্রের বিজেপি এমএলএ আশিস সেলর হতে চলেছেন বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ।ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার রজার বিনি দেশের হয়ে ২৭টি টেস্টে খেলে ৪৭টি উইকেট নিয়েছিলেন। ৭২টি ওয়ান ডে ম্যাচে খেলে ৭৭টি উইকেট পেয়েছিলেন। বিনির কেরিয়ারের অন্যতম সাফল্য ১৯৮৩-র বিশ্বকাপে তিনি ৮টি ম্যাচে খেলে ১৮টি উইকেট নিয়েছিলেন। তিনি পূর্বে ভারতের সিনিয়র পুরুষ দলের নির্বাচকের দায়িত্ব পালন করেছেন। এ ছাড়াও তিনি ২০১৫ সালে বিশ্বকাপের স্কোয়াড বাছাইয়ের সময় নির্বাচক প্যানেলে ছিলেন। এদিন প্রাক্তন ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী বিনিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, ‘সংবাদমাধ্যম মারফত যতটুকু জেনেছি তাতে বলব, আমার মনে হয় না বোর্ডের প্রেসিডেন্ট পদে কেউ দ্বিতীয় মেয়াদ পেয়েছে। এতে সবার জন্য সুযোগ চলে আসে। জীবনে কোনও কিছু স্থায়ী নয়। একটা সময়ের পরে সবাইকে সরে যেতে হয়।’

একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিনি কর্নাটক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাজ করছে। এখন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট পদে উন্নীত হচ্ছে। আমি ভীষণ খুশি। বিসিসিআইয়ের ইতিহাসে প্রথমবার এমন একজন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন যিনি বিশ্বকাপ জিতেছেন।’

শাস্ত্রী আরও বলেন, “বিনির যোগ্যতা প্রশ্নাতীত। ওর সততা দিকে তাকান। আমি আগেই বলেছি ও বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য যা যা প্রয়োজন সব বিভাগেই বিনি আদর্শ।’

জীবন যে কোনো খাতে বইতে পারে বলে মোদীর নাম সৌরভের মুখে – NF Bangla Private Limited (newsfrontbangla.com)

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।