ফোন করে ডেকে মুক্তিপণ দাবি করে যুবক খুন, চাঞ্চল্য

এনএফবি, বহরমপুরঃ

ফোন করে ডেকে অপহরণের পরে বহরমপুরে খুন করা হলো এক যুবককে বলে অভিযোগ করা হয়েছে । বৃহস্পতিবার সকালে ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে বহরমপুর থানার উত্তরপাড়া এলাকায়। মৃত যুবকের নাম বাপ্পা মন্ডল(২৫)।

নিজস্ব চিত্র

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উত্তরপাড়ার মোড়ে বাপ্পার বাবা মিলন মন্ডলের একটি বেকারির দোকান রয়েছে। দোকানে বাবার সঙ্গে বাপ্পাও কাজ করত। এদিন বাপ্পা সন্ধ্যার সময় দোকান থেকে বাড়ি চলে আসে। পরে কেউ তাকে ফোন করে ডাকে বলে পরিবারের অভিযোগ। সেই ফোন পেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় বাপ্পা। তারপর তার আর খোঁজ পাওয়া যায়নি। বুধবার রাত দশটা নাগাদ বাপ্পার ফোন থেকে একজন অচেনা ব্যক্তি বাপ্পার বাড়িতে ফোন করে জানায় বাপ্পাকে অপহরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। বাবা মিলন মন্ডল কোনক্রমে দেড় লক্ষ টাকা জোগাড় করে তাদের কথামতো বেলডাঙ্গার দিকে রওনা দেন। তার আগে তিনি বহরমপুর থানায় বিষয়টি জানালে দুই পুলিশ কর্মী সাদা পোশাকে তাকে অনুসরণ করে যেতে থাকেন। কিন্তু বেলডাঙ্গা পৌঁছালে অপহরণকারীরা বুঝতে পারে মিলনের সঙ্গে লোকজন রয়েছে। এর পরেই বাপ্পার ফোনের সুইচ অফ করে দেয় অপহরণকারীরা। সারা রাত বাপ্পার বাবা বেলডাঙ্গা পেট্রোল পাম্পে বসে থাকলেও অপহরণকারীরা তার কাছে আসেনি। বৃহস্পতিবার সকালে বহরমপুর থানার ফতেপুর অঞ্চলে একটি রাস্তার ধারে বাপ্পার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। মৃতের পরিবারের সঙ্গে পুলিশ যোগাযোগ করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।