জুন 15, 2024
Latest:
জাতীয়

আত্মরক্ষায় গুলি চালাতে হয়েছিল- নাগাল্যান্ড ইস্যুতে সংসদে জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

এনএফবি, নিউজ ডেস্কঃ

নিরাপত্তা বাহিনীকে নিজেদের আত্মরক্ষার জন্য গুলি চালাতে হয়েছিল, নাগাল্যান্ড ইস্যুতে সোমবার পার্লামেন্টে জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। একইসঙ্গে এদিন তিনি নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে গ্রামবাসীদের প্রাণহানির ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এদিন অমিত শাহ পার্লামেন্টে জানান, সেনাবাহিনী ওটিং, সোম-এ চরমপন্থীদের সম্ভাব্য উপস্থিতি সম্পর্কে তথ্য পেয়েছিল। তার ভিত্তিতে ২১ জন কমান্ডো সন্দেহভাজন এলাকায় অতর্কিতে অভিযান চালিয়েছিল। সেখানে পৌঁছানো একটি গাড়িকে থামার সংকেত দেওয়া হয়েছিল কিন্তু সেটি পালানোর চেষ্টা করেছিল। চরমপন্থীদের বহনকারী গাড়ি সন্দেহে এই গাড়ির উপর গুলি চালানো হয়েছিল। গাড়িতে থাকা ৮ জনের মধ্যে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। পাল্টা শত শত সাধারন মানুষ মন জেলার আসাম রাইফেলসের একটি ক্যাম্প ভাঙচুর করে। বাহিনীর একাধিক গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। আত্মরক্ষার্থে ফের গুলি চালাতে বাহিনীকে। যার ফলে মৃত্যু হয় ৭ গ্রামবাসীর।“
তিনি আরও বলেন, সেনার তরফ থেকে প্রেস বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। সেনাবাহিনী দুঃখ প্রকাশ করেছে। সেই সাথে তিনি জানান, সবাইকে নিশ্চিত করতে হবে ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘটনা না হয়। সরকার এই দিকে তীক্ষ্ণ নজর রাখছে। ভারত সরকার দুঃখ প্রকাশ করেছে।
অমিত শাহ জানান, বিশেষ তদন্তকারী দল গঠন করা হয়েছে। এক মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ করা হবে।

এদিকে নাগাল্যান্ড গুলি কাণ্ডে সংঘাতে কেন্দ্র-রাজ্য। আধা সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল নাগাল্যান্ড পুলিশ। অসম রাইফেলসের বিরুদ্ধে অভিযোগে নাগাল্যান্ড পুলিশের উল্লেখ, স্থানীয় পুলিশকে না জানিয়ে তাদের সাহায্য না চেয়েই অভিযান চালানো হয়। সাধারণ নাগরিকদের খুন ও আহত করাই ছিল নিরাপত্তা বাহিনীর উদ্দেশ্য। এদিকে মন জেলায় জারি হয়েছে কার্ফু। এদিন নিহত গ্রামবাসীদের শেষকৃত্যে যোগ দেন নাগাল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নেইফিউ রিয়ু। এদিকে নাগাল্যান্ড গুলি কাণ্ডের জেরে আফস্পা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা।