ডিসেম্বরেই রাজস্ব আদায়ের ১২ হাজার কোটির লক্ষ্যমাত্রা ছুঁয়ে ফেলল আবগারি দফতর

এনএফবি, নিউজ ডেস্কঃ

বছর শেষের আগেই লক্ষ্যপূরণ। মদ বিক্রিতে রাজ্যের রাজস্ব আদায়ের যে বাৎসরিক লক্ষ্য মাত্রা ঠিক করা হয়েছিল তা ডিসেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহেই ছুঁয়ে ফেলেছে রাজ্য আবগারি দফতর। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে ১২ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব বাবাদ আয় করার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছিল বলে সংবাদ সূত্রে জানা গেছে। সাড়ে তিনমাস বাকি থাকতেই সেই লক্ষ্য পূরণ হয়েছে বলে আবগারি দফতর সূত্রে খবর।

রাজ্যে অবৈধ মদ বিক্রি উল্লেখ্যযোগ্য ভাবে কমানোর ফলেই এই সাফল্য বলে দাবি আবগারি দফতরের। একই সঙ্গে সম্প্রতি সরকারের তরফে কিছু ব্যবস্থা নেওয়ায় সার্বিকভাবে মদ বিক্রি বেড়েছে। করোনাকালে অনলাইন মদ বিক্রিও রাজস্ব আদায়ে বড় ভূমিকা নিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে সস্তায় দেশি মদের অনেকগুলি ব্র্যান্ড সম্প্রতি চালু হয়েছে এ রাজ্যে। কম দামে বৈধ দেশি মদ পেয়ে অনেকেই চোলাইয়ের মত ঝুঁকিপূর্ণ পানীয় থেকে সরে আসছেন। ফলে একদিকে যেমন মদ থেকে বিষক্রিয়ার মতো ঝুঁকি কমছে তেমনি ভরছে কোষাগার।

উল্লেখ্য, একটা সময়ে রাজ্য আবগারি দফতর ৫০০ কোটি টাকার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েও তা ছুঁতে পারত না, কিন্তু এখন প্রতি বছরই বেড়ে চলছে আয়। চলতি আর্থিক বছরের শেষে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেকটাই বেশি আয় হবে। ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে দফতরের রাজস্ব আয় হয় ৯৩৪০.০৫ কোটি টাকা। সে বার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪,৭৮৮ কোটি টাকা। ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে আয় হয় ১০,৫৯০.৭২ কোটি টাকা, লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১০,৫০৩.৪১ কোটি টাকা।

২০১৫-১৬ অর্থবর্ষে বছরের শুরুতে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্র ছুঁতে পারেনি দফতর। পরিস্থিতি বদল হয় ২০১৭ সাল থেকে। সেই বছর জানুয়ারি মাস থেকেই রাজ্যে দেশি ও বিদেশি মদের মূল ডিস্ট্রিবিউটার হিসাবে কাজ শুরু করে ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট বেভারেজেস কর্পোরেশন (বেভকো)। আর তখন থেকেই আয় বৃদ্ধি এক নতুন মাত্রা পায়। শুধু তাই নয় প্রতি বছর নিজের রেকর্ড ভাঙতে থাকে আবগারি দফতর। সর্বশেষ ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১১,০০০ কোটি টাকা সেখানে দফতর আয় করে ১১,২৩৬ কোটি টাকা। গত পাঁচ বছর ধরেই আবগারি দফতরের উপরে রাজ্যের আর্থিক ব্যবস্থার ভরসা বেড়েছে বলেই আবগারি দফতরের কর্তাদের দাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.