পিছিয়ে গেল চার পুর নিগমের নির্বাচন, ভোট ১২ ফেব্রুয়ারি

এনএফবি, কলকাতাঃ

আদালতের পরামর্শকে বিবেচনা করে আসন্ন চার পুরনিগমের ভোট পিছিয়ে দিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। ১২ ফেব্রুয়ারি বকেয়া এই নির্বাচন হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়ে দিল কমিশন।

করোনা বাড়বাড়ন্তের কারণে শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্ট নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়া যায় কি না তা বিবেচনার নির্দেশ দিয়েছিল। একইসঙ্গে হাইকোর্ট কমিশনকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সিদ্ধান্ত জানানো সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিল। আদালতের এই নির্দেশের পর শনিবার-ই রাজ্য সরকারের তরফে ভোট পিছিয়ে দেওয়ার সবুজ সংকেত দিয়ে কমিশনকে চিঠি পাঠায় নবান্ন। তার পর ভোট পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। যদিও এ বিষয়ে এখনও চুড়ান্ত বিজ্ঞপ্তি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়নি।

রাজ্য নির্বাচন কমিশনের বিজ্ঞপ্তি

আগামী ২২ জানুয়ারি বিধাননগর, চন্দননগর, আসানসোল এবং শিলিগুড়ি পুর নিগমের নির্বাচন ঘোষণা করেছিল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশন। কমিশনের জারি করা নির্ঘন্ট অনুযায়ী মনোনয়ন জমা এবং রাজনৈতিক দলগুলির প্রচার শুরু হয়েছিল। এরই মধ্যে কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা মাত্রাছাড়া ভাবে বৃদ্ধি পায়। সংক্রমণে রাশ টানতে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে রাজ্য জুড়ে বিধিনিষেধও জারি করা হয়। এই পরিস্থিতিতে ভোট পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে একাধিক মামলা হয়। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে আদালত কমিশনকে ভোট চার থেকে ছয় সপ্তাহ স্থগিত রাখা যায় কি না তা বিবেচনার করার নির্দেশ দেয় প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ।


খবরটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করুন

নিউজফ্রন্ট বাংলার এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 95936 66485

Leave a Reply

Your email address will not be published.