জেলাফিচার

গৃহশিক্ষিকার বাবার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ, উত্তেজনা

এনএফবি, বালুরঘাটঃ

টিউশন পড়তে গিয়ে যৌন হেনস্তার শিকার চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীর। প্রতিবাদে ভাঙচুর বাড়িঘর। এলাকার তৃণমূল কাউন্সিলরের সামনেই রক্তাক্ত করা হল অভিযুক্ত অরূপ মহন্তকে। বুধবার গভীর রাতে এই ঘটনাকে ঘিরে তুমুল উত্তেজনা বালুরঘাট শহরের সাত নম্বর ওয়ার্ডের মাস্টার পাড়া এলাকায়।

ঘটনার পরেই এলাকায় ছুটে গিয়ে অভিযুক্ত অরূপ মোহন্তকে গ্রেফতার করেছে বালুরঘাট থানার পুলিশ। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বালুরঘাট সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল চিকিৎসাধীন রয়েছে অরূপ।

জানা গেছে, শহরের সাত নম্বর ওয়ার্ডের মঙ্গলপুর মাস্টারপাড়া এলাকার বাসিন্দা তথা অভিযুক্ত অরুপ মহন্ত। পেশায় গাড়ি চালক অরুপ বুধবার সন্ধ্যায় বাড়িতেই ছিলেন। মেয়ে অনুশ্রী মহন্তর কাছে ওইদিন সন্ধ্যায় রোজকার মতো পড়তে এসেছিল চতুর্থ শ্রেণীর ওই কিশোরী। ছাত্রীকে পড়তে দিয়ে বাড়ি থেকে সামান্য দূরে একটি দোকানে গিয়েছিল দিদিমণি অনুশ্রী। সে সময় বাড়িতে ওই ছাত্রীর পাশাপাশি ছিলেন তার বাবা অরূপও। অভিযোগ ওই কিশোরী ছাত্রীকে সেসময় একা পেয়ে দিদিমনির বাবা যৌন নির্যাতন চালায়। এরপর বাড়ি গিয়ে ওই খুদে পড়ুয়া তার মাকে গিয়ে সব কথা বলতেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ছুটে আসে এলাকার তৃণমূল কাউন্সিলরও।

যার উপস্থিতিতেই অভিযুক্তর বাড়িতে ভাঙচুর চালায় উত্তেজিতরা। বাড়িঘর ভেঙ্গে তছনছ করা হয়েছে। বেধড়ক মারধর করে রক্তাক্ত করা হয়েছে অভিযুক্ত অরূপ মহন্তকে। এরপরেই এই ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় ছুটে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেছে বালুরঘাট থানার পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত অরুপ মহন্তকে। ঘটনা জানিয়ে বালুরঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই কিশোরীর পরিবার। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি তুলেছেন কিশোরীর বাবা ও মা।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।