উদ্বেগ বাড়িয়ে ভারতে ডেল্টাকে ছাপিয়ে যাচ্ছে ওমিক্রন

এনএফবি, নিউজ ডেস্কঃ

আশঙ্কা সত্যি হল। আর তাতে সিলমহর দিল খোদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। ইউরোপের অনান্য দেশগুলির মতো ভারতেও করোনা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টকে ছাপিয়ে যেতে শুরু করেছে নয়া প্রজাতি ওমিক্রন। স্বাস্থ্য মন্ত্রককে উদ্ধৃত করে এই খবর জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই।

ইতিমধ্যে জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের পর দেখা যাচ্ছে রাজধানী দিল্লির ৫০ শতাংশ করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরেই মিলেছে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ। এদের মধ্যে অনেকেরই বিদেশযাত্রার রেকর্ড নেই। বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই গোষ্ঠী সংক্রমনের আশঙ্কা করেছেন। মুম্বাইয়েও পরিস্থিতি একই। দেশের বাণিজ্যনগরীতে আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বঙ্গেও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দৈনিক সংক্রমণ। পশ্চিমবঙ্গে দৈনিক সংক্রমণ ৩০ থেকে ৩৫ হাজার হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সরকারিভাবেও ভাড়োটে করোনার সংখ্যাবৃদ্ধি নিয়ে উদ্বেগপ্রকাশ করেছে সবাস্থ্যমন্ত্রক। সবাস্থ্য সচিব রাজেশ ভুষণ রাজ্যগুলিকে লেখা এক চিঠিতে জানিয়েছেন, ”আরটি-পিসিআর টেস্টের রিপোর্ট আসতে অনেক ৫-৮ ঘন্টা লেগে যাচ্ছে। এই ঝঞ্ঝাট এড়াতে র্যা ট(RAT) টেস্টের দিকে জোর দেওয়া হোক।“

ইতিমধ্যে গবেষণায় দেখা গিয়েছে ডেল্টার থেকেও ওমিক্রন পাঁচগুণ বেশি সংক্রামক। সুতরাং প্রাকৃতিক নিয়মেই ডেল্টাকে কোণঠাসা করে ফেলেছে করোনার এই নয়া অবতার। তবে ডেল্টার থেকে সংক্রামক হলেও নতুন প্রজাতির মারণ ক্ষমতা তুলনামূলকভাবে কিছুটা কম। আগামী দিনে সংক্রমণ বাড়লেও মৃত্যু কিছুটা কমতে পারে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা, এটাই সবস্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.