প্রয়াত জেঠুর শেষকৃত্যে উপস্থিত দেব

এনএফবি, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

প্রয়াত ঘাটালের সাংসদ অভিনেতা দেবের জেঠু তারাপদ অধিকারী।কেশপুরের মহিষদা গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তারাপদ বাবু। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৭১ বছর। জেঠুর শেষ কৃত্যে বাবাকে নিয়ে হাজির হলেন দেব।

বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে দাহ সম্পন্ন হয়েছে শনিবার দুপুরে। আগাগোড়া উপস্থিত থেকে সমস্ত প্রক্রিয়ায় অংশ নিলেন তিনি।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিনেতা দেবের পেশাগত সাফল্যের জেঠুর অবদান ছিল। একসময় রোজগারের আশায় মুম্বাইয়ে গিয়েছিলেন তারাপদ। সেখানে শুটিং ফ্লোরের একটি স্থানে এক ক্যান্টিন ব্যবসায়ীর সঙ্গে কাজ করতেন। পরে নিজেও ক্যান্টিন খুলেছিলেন সেখানে। এরপর নিজের ভাই গুরুপদ অধিকারীকে রোজগারের জন্য নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে শুটিং সম্মেলিত এডিটিং ডাবিং-সহ বিভিন্ন কাজে যুক্ত ছিলেন সাংসদদের বাবা গুরুপদ অধিকারী। গুরুপদ অধিকারী পশ্চিম মেদিনীপুরে ফিরে চন্দ্রকোনারোড এলাকায় বিয়ে করলেও দেবের জন্মের দু’বছর পরেই তাকে নিয়ে মুম্বাইয়ে ছিলেন। সেখান থেকেই ফিল্ম জগতের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় দেবের।

স্থানীয়রা জানান, জেঠু পরে গ্রামে ফিরেছিলেন। তবে ততদিনে দেব ও তার বাবা গুরুপদ অধিকারীর মুম্বাইয়ের সঙ্গে সম্পর্ক নিবিড় হয়ে গিয়েছিল। সেই জেঠু গ্রামে থাকা অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কেশপুর হাসপাতালে মারা যান।

তারাপদ বাবুর এক ছেলে আমেরিকায় থাকেন, আরেক ছেলে ও মেয়ে হাজির ছিলেন কেশপুরেই। এরপরই সাংসদ শেষকৃত্যে উপস্থিত হবেন বলে ইচ্ছা প্রকাশ করলে দেহ রাখা হয়েছিল শনিবার পর্যন্ত। শনিবার বেলা আড়াইটা নাগাদ কেশপুরের মহিষদা গ্রামে উপস্থিত হন দেব।

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।