ম্যাচ জিতলেও রেফারির মান নিয়ে ক্ষুব্ধ মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক, এনএফবিঃ

আর্জেন্টিনা বনাম নেদারল্যান্ডস শেষ আটের লড়াইয়ে রেফারির মান নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন । ১০ মিনিট এক্সট্রা টাইম দেওয়া থেকে নেদারল্যান্ডসের রিজার্ভ বেঞ্চ ফুটবলাররা মাঠে নেমে আর্জেন্টিনার ফুটবলারদের উপর আক্রমণ চালায়। তবুও রেফারি তাঁদের লাল কার্ড দেখাননি। এছাড়া ম্যাচ পরিচালনা নিয়েও উঠছে একাধিক প্রশ্ন। এ দিন জিতলেও রেফারির উপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। কোয়ার্টার ফাইনালের মতো ম্যাচে এমন রেফারিকে দায়িত্ব দেওয়াই উচিত নয় বলে মনে করছেন মেসি।
আর্জেন্টিনা বনাম নেদারল্যান্ডস ম্যাচে ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল স্পেনের রেফারি, মাতেও লাহোজ’কে। এ দিন মোট ১৫ টি কার্ড দেখান তিনি। খেলোয়াড়দের পাশাপাশি আর্জেন্টিনার এক কোচকে হলুদ কার্ড দেখাতেও সময় ব্যয় করেননি স্প্যানিশ রেফারি। বেঞ্চে বসে থাকা খেলোয়াড়দেরও এই দিন হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন লাহোজ। গোটা ম্যাচে মোট আটটি হলুদ কার্ড দেখে আর্জেন্টাইন ফুটবলাররা। অন্য দিকে ছয়টি হলুদ কার্ড দেখে ডাচ দলটির ফুটবলাররা।
মেসি বনাম লাহোজের দ্বৈরথ আগেও হয়েছে। বার্সেলোনায় থাকাকালীন ২০১৩-১৪ মরসুমে লা লিগায় মেসির একটি গোল বাতিল করেছিলেন লাহোজ। যার ফলে লিগ জিতে যায় আথলেটিকো মাদ্রিদ। ২০২০ সালে বার্সেলোনার হয়ে খেলার সময় গোল করার পর জার্সি খুলে মারাদোনা’কে শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন মেসি। সেই সময়ও তাঁকে হলুদ কার্ড দেখান এই স্প্যানিশ রেফারি। এই দিন ম্যাচের পর মেসি বলেন, “রেফারি সম্পর্কে আমি কিছু বলব না। কারণ সকলের সামনে এটা উচিত নয়। আমার মনে হয় ফিফার একবার ভেবে দেখা প্রয়োজন ছিল, এ রকম ম্যাচে এই ধরনের রেফারিকে দায়িত্ব দেওয়া উচিত কি না। এমন রেফারিকে দায়িত্ব দেওয়া উচিত নয়, যে কাজটার যোগ্যই নন।” তিনি আরও বলেন, “রেফারির নাম দেখে ম্যাচ শুরুর আগেই আমরা ভয়ে ছিলাম। এমন গুরুত্বপূর্ণ একটা ম্যাচে এই ধরনের রেফারিকে দায়িত্ব দেওয়াই উচিত নয়।”

নিউজ ফ্রন্ট বাংলার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন টি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।